Main Menu

র‌্যাব-১১ এর অভিযানে কিশোর গ্যাং এর অপহরণকারী ১১ সদস্য গ্রেফতার।

র‌্যাব-১১ এর একটি আভিযানিক দল গত ০৯ অক্টোবর ২০২০ তারিখে দিবাগত রাত ১৯৩০ ঘটিকার সময় নারায়ণগঞ্জ জেলার ফতুলল্লা মডেল থানাধীন চাঁনমারী মাউরাপট্টি সেকশনমাঠ এলাকায় একটি বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে এলাকায় ত্রাস ও জনমনে ভয়ভীতি সৃষ্টিকারী কিশোর গ্যাং এর ১১ সদস্যকে গ্রেফতার করে। গ্রেফতারকৃতরা হলো ১। মোঃ রাসেল মিয়া @ রাসেল (১৮), ২। মোঃ জালাল (১৮), ৩। মোঃ আমিনুল ইসলাম (২৩), ৪। মোঃ জনি @ শফিকুল ইসলাম (১৮) ৫। মোঃ জাকির হোসেন @ জাকির (১৮) ৬। মোঃ আনোয়ার (১৮), ৭। মোঃ জুয়েল রানা (২২) ৮। মোঃ আবু নাঈম (১৮) ৯। মোঃ ফেরদৌস ইসলাম (১৮), ১০। মোঃ আব্দুল­াহ @ শুভ (২৪) ও ১১। মোঃ সাইফুল ইসলাম @ শান্ত (১৮)।

গ্রেফতারকৃতদের জিজ্ঞাসাবাদ ও প্রাথমিক অনুসন্ধানে জানা যায় যে, তারা সবাই দুষ্কৃতিকারী ও কিশোর গ্যাং গ্র“পের সক্রিয় সদস্য। তারা দীর্ঘদিন যাবৎ রাস্তা ঘাটে পরিকল্পিতভাবে দলবদ্ধ হয়ে সংঘাত সৃষ্টি ও জনমনে ভয়ভীতি দেখিয়ে এলাকায় ত্রাস সৃষ্টি করে আসছিল। এছাড়াও ঐ এলাকায় কোন অপরিচিত লোক আসলে জিম্মি করে মূল্যবান জিনিসপত্র জোরপূর্বক ছিনিয়ে নেয়।

গত ০৮ অক্টোবর ২০২০ তারিখে কিশোর গ্যাং গ্র“পের উক্ত সদস্যরা অপর এক কিশোরকে অপহরণ করে চাঁনমারী মাউরাপট্টি সেকশনমাঠ এলাকায় একটি পরিত্যক্ত ভবনে আটকে রাখে এবং মারধর করে তার কাছে থেকে ৩০০০/- টাকা ছিনিয়ে নেয়। পরবর্তীতে ভিকটিম এর মায়ের কাছ ফোন করে ৪০০০০/- টাকা মুক্তিপণ দাবি করে। ভিকটিম এর মা ১০০০০/- টাকা দিবে বলে জানায়। তারপর ভিকটিম এর মা র‌্যাবের কাছে একটি অভিযোগ করে। ভিকটিম এর মায়ের অভিযোগের ভিত্তিতে র‌্যাব-১১ ঘটনার সত্যতা পেয়ে গত ০৯ অক্টোবর ২০২০ তারিখে দিবাগত রাত ১৯৩০ ঘটিকার সময় র‌্যাব-১১ এর বিশেষ একটি আভিযানিক দল ভিকটিম কে উদ্ধার করে উক্ত কিশোর গ্যাং এর ১১ জন সক্রিয় সদস্যকে গ্রেফতার করে।

গ্রেফতারকৃতদের বিরুদ্ধে নারায়গঞ্জের ফতুল­া থানায় আইনানুগ কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন।






Related News

Comments are Closed