Main Menu

প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিন উপলক্ষ্যে বঙ্গবন্ধু লেখক সাংবাদিক ফোরামের দোয়া ও আলোচনা

.সিলেট প্রতিনিধি :: ১৯৪৭ সালের এই দিনে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের প্রথম সন্তান শেখ হাসিনা গোপালগঞ্জের টুঙ্গীপাড়ায় জন্মগ্রহণ করেন। বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার ৭৪’তম জন্মদিন উপলক্ষে বঙ্গবন্ধু লেখক সাংবাদিক ফোরাম (ইউকে) সিলেট জেলা শাখার উদ্যোগে সোমবার (২৮ সেপ্টেম্বর) রাত ৮টায় মহানগরীর পুরানলেনস্থ ৫৩-সমবায় ভবনের অস্থায়ী কার্যালয়ে এক আলোচনা সভা ও দোয়া অনুষ্ঠিত হয়।
বঙ্গবন্ধু লেখক সাংবাদিক ফোরাম সিলেট জেলা শাখার সভাপতি রুহুল ইসলাম মিঠুর সভাপতিত্বে ও সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক ডাঃ আক্তার হোসেনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, সিলেট জেলা আওয়ামীলীগের সাবেক মহিলা বিষয়ক সম্পাদক ও সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব নাজনিন হোসেন।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে নাজনিন হোসেন বলেন, ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্টের কালরাতে শেখ মুজিবুর রহমান ও মা ফজিলাতুননেছা মুজিবসহ অন্য সদস্যদের ঘাতকরা নির্মমভাবে হত্যা করে। ওই সময় শেখ হাসিনা ও শেখ রেহানা জার্মানিতে থাকায় প্রাণে বেঁচে যান। প্রধানমন্ত্রীকে হত্যার জন্য এখনো ষড়যন্ত্র চলছে। যত ষড়যন্ত্র হোক না কেন জাতির জনকের কন্যা তাঁর পিতার আদর্শ ও বাংলার মানুষের উন্নয়ন অগ্রগতিতে পিছপা হবেন না। অনেকবার শেখ হাসিনাকে হত্যার চেষ্টা করা হয়েছে। মহান আল্লাহ তাঁকে দেশ ও মানুষের সেবায় বাঁচিয়ে রেখেছেন। আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় থাকলে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ আরো এগিয়ে যাবে। শেখ হাসিনার নেতৃত্বে তলাবিহীন ঝুড়ি থেকে দেশ মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত হয়েছে। আমরা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে উন্নত আধুনিক আর মানবিক রাষ্ট্র হিসেবে বিশ্বের বুকে মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়ে থাকবো ইনশাল্লাহ।
আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য প্রধান করেন, কানাইঘাট উপজেলা আওয়ামীলীগের সাবেক যুগ্ম সম্পাদক ও বিশিষ্ট আইনজীবী এডভোকেট মামুনুর রশীদ, বিশিষ্ট সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব ধ্রুব গৌতম, মহানগর আওয়ামীলীগ নেতা হেলাল আহমদ, মহানগর যুবলীগ নেতা নিজাম উদ্দিন, হৃদয়ে ’৭১ ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান ইব্রাহিম আহমদ জেসি।
বঙ্গবন্ধু লেখক সাংবাদিক ফোরাম সিলেট জেলা শাখার সাংগঠনিক সম্পাদক এম হাফিজুল ইসলাম লস্করের স্বাগত বক্তব্যের মাধ্যমে সূচিত অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য দেন ফোরামের সহ-সভাপতি মোঃ হোসাইন কবির, সিনিয়র সদস্য কবি কামাল আহমদ, কলামিষ্ট তাজ উদ্দিন, শাহারুল ইসলাম মন্ডল, সেলিম আহমদ, মোঃ জসিম উদ্দিন, সজিব আহমদ বিজয়, সংস্কৃতিকর্মী কামরুন্নেছা সায়মা, বুশরা আক্তার সীমা, মহানগর ছাত্রলীগ নেতা ফুয়াদ আহমদ ও শান্ত মল্লিক প্রমুখ।
সভার শেষ পর্যায়ে ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধু ও তাঁর পরিবারের শাহাদাৎবরণকারী সকল সদস্যদের বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সুস্বাস্থ্য ও দীর্ঘায়ু এবং দেশ ও জাতির মঙ্গল কামনা করে বিশেষ দোয়া পরিচালনা করেন এম হাফিজুল ইসলাম লস্কর। বিশেষ মোনাজাত শেষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৪’তম জন্মদিন কেক কেটে উদযাপন করেন সংগঠনের নেতৃবৃন্দ ও আমন্ত্রিত অতিথিবৃন্দ।






Related News

Comments are Closed