Main Menu

চুনারুঘাটের রানীগাঁও যুবলীগের কাউন্সিলে প্রার্থী নিয়ে মিশ্র প্রতিক্রিয়া

চুনারুঘাট (হবিগঞ্জ) প্রতিনিধি \ হবিগঞ্জের চুনারুঘাট উপজেলার ৯নং রানীগাঁও ইউনিয়ন যুবলীগের কাউন্সিলে প্রবাসী দুলাল মিয়া সভাপতি পদে প্রার্থী হওয়ায় স্থানীয় নেতাকর্মীদের মাঝে নানান বিতর্ক সহ মিশ্র প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়েছে। তিনি নব্য যুবলীগের নামধারী সদস্য ও যুদ্ধাপরাধী সৈয়দ কায়সার রাজাকারের পুত্র তানভীরের তালা মার্কায় স্বপরিবারে প্রকাশ্যে সমর্থক ও অফিসদাতা, নারী কেলেঙ্কারীতে জড়িত, করাঙ্গী নদী থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনকারী বালুখেকো ও তাদের দেয়া এতিমখানা মাদ্রাসার নামীয় জমিতে অবৈধভাবে গরুর হাট বসিয়ে বিনা রশিদে চাঁদা আদায়, যুবলীগের এক সদস্যকে মারপিট করা সহ অপরাধমূলক কর্মকান্ডে জড়িতের অভিযোগ রয়েছে। স্থানীয় নেতাকর্মী সূত্রে জানা যায়, পিস কমিটির সদস্য আব্দুস সালাম কিরু মিয়ার আপন ভাতিজা দুলাল দীর্ঘ প্রায় ২০ বছর প্রবাস থেকে বাড়িতে এসে কিভাবে মুজিব আদর্শের কোন সংগঠনে সদস্য না হওয়া স্বত্তে¡ও ফরম কিনে তথ্য গোপন করে মিথ্যা তথ্য দিয়ে ফরম জমা দেন সে বিষয়ে স্থানীয় নেতাকর্মীদের মাঝে ক্ষোভ দেখা দিয়েছে। তার পিতা সহ পরিবারের কোন সদস্য আওয়ামীলীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ ও মুজিব আদর্শের নিবন্ধনকৃত কোন সংগঠনের আদৌ সদস্য নয় বা কোন কমিটির কাগজ দেখাতে পারবে না বলে স্থানীয় নেতাকর্মীরা জানান। এমন বিতর্কিত লোকদের যুবলীগের কমিটিতে স্থান না দেওয়ার জন্য স্থানীয় নেতাকর্মীরা জোর দাবি জানান। অতীতে ছাত্রলীগ ও যুবলীগের সদস্যও না এমন লোকও হঠাৎ করে যুবলীগে ঢুকতে চায়। এ নিয়ে রানীগাঁও ইউনিয়ন যুবলীগের নেতাকর্মীদের মাঝে মিশ্র প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়েছে। এ বিষয়ে দুলালের কাছ থেকে জানতে চাইলে তিনি জানান, আমি এক সময় ছাত্রলীগের কর্মী ছিলাম। দীর্ঘদিন প্রবাসে থাকার কারণে আমি কোন সংগঠনের সদস্য হতে পারি নাই। বিদেশ থেকে এসে তানভীরের পক্ষে না বুঝে আমরা তালা মার্কার নির্বাচনী কাজ করেছিলাম। পূর্বে আমরা সুন্নী জামাতের মোমবাতি মার্কায় ভোট দিতাম। এখন আমরা নৌকায় ভোট দেই। প্রয়োজনে যুবলীগ নেতা রিপন ভাইকে জিজ্ঞাসা করলে আমি যে দলের লোক ও যুবলীগের সদস্য তা পাবেন। পিছনে অনেকেই অনেক কিছুই বলে। সামনে তো বলে না। আমাদের জায়গায় আমরা গরুর হাট বসাই। এদিকে চুনারুঘাট উপজেলা যুবলীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ফারুক মাহমুদ হঠাৎ পূনরায় রানীগাঁও ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি পদে সিভি জমা দেওয়ায় কিছু নেতাকর্মী ও প্রার্থীদের মাঝে হতাশা সৃষ্টি হয়েছে। তিনি কিভাবে চুনারুঘাটে ও ইউনিয়নে দুটি পদে থাকবেন তা আমাদের বোধগম্য নয়। এ বিষয়ে ফারুক মাহমুদকে জিজ্ঞেস করলে তিনি বলেন, আমি চুনারুঘাট উপজেলা যুবলীগের প্রচার সম্পাদক পদ থেকে স্বেচ্ছায় অব্যাহতি নিয়ে রানীগাঁও ইউনিয়ন যুবলীগের হাল ধরতে ও পূনরায় যুবলীগকে সুসংগঠিত করার লক্ষ্য সভাপতি পদে সিভি জমা দিয়েছি। আমার চেয়ে যোগ্য, অভিজ্ঞ ও ত্যাগী যদি অন্য কোন প্রার্থী পাওয়া যায় তাকে দিলে আমার কোন সমস্যা নাই। আমি দলের ব্যানারে ছিলাম, আছি থাকব। চুনারুঘাট উপজেলার আওয়ামী যুবলীগের ১০টি ইউনিয়ন, পৌরসভা ও আঞ্চলিক কমিটির কাউন্সিলকে ঘিরে সরব হয়ে উঠছে গ্রামগঞ্জ। ইতিমধ্যে এসব ইউনিটের কাউন্সিলে সভাপতি, সম্পাদক, যুগ্ম সম্পাদক ও সাংগঠনিক সম্পাদক হওয়ার দৌড়ে ৩ শতাধিক নেতাকর্মী ফরম জমা দিয়েছেন। ইউনিয়নের এসব নেতা এখন দৌড়াচ্ছেন জেলা ও উপজেলা নেতাদের কাছে। যুবলীগে আওয়ামী পরিবারের বাইরে কাউকে এবং বিগত দিনে যারা আওয়ামী রাজনীতির সাথে জড়িত ছিলেন না তাদের কাউকে দলীয় পদ দেওয়া হবে না বলে যুবলীগের একটি সূত্র জানিয়েছে। নেতাকর্মীদের ভিড় জমেছে চুনারুঘাট উপজেলা সদরে। চলছে লবিং ও গ্র“পিং সহ নেতা হওয়ার দৌড়ঝাপ। যুবলীগে নতুন এসেছেন এমন অনেকেই প্রার্থী হয়েছেন। তারা নেতা হওয়ার জন্য এখন দৌড়ঝাপ শুরু করেছেন। তবে কেন্দ্রীয় যুবলীগের নির্দেশ রয়েছে কোনভাবেই হাইব্রিড কোন নেতা যেন কোন পদে না আসে। একই সাথে আওয়ামী পরিবারের বাইরে কাউকে কোন ভাবেই পদে আনা যাবে না এমন নির্দেশনাও রয়েছে। তারা ইতোমধ্যে খোঁজ খবর নিচ্ছেন কারা কারা দলীয় পদে আসতে চায় এবং তারা পারিবারিকভাবে আওয়ামীলীগ পরিবারের নাকি দলে নতুন আসা নেতাকর্মী। কেন্দ্রের নির্দেশ রয়েছে ২০০৯ সালের আগে যারা আওয়ামী রাজনীতির সাথে জড়িত ছিল শুধু তাদেরকেই পদে রাখা যাবে। দলীয় সিদ্ধান্তে এবার জেলা ও উপজেলার সমন্বয়ে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে এ কাউন্সিল গঠনের। আর জেলার নেতাদের তদারকিতে চুনারুঘাট উপজেলা যুবলীগের সভাপতি, সহ-সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক, যুগ্ম সম্পাদক ও সাংগঠনিক সম্পাদকদের নিয়ে চুনারুঘাটের ১৭ নেতাকে এ কাউন্সিল সম্পন্নের দায়িত্ব দেয়া হয়। তারা গুরুত্ব সহকারে দায়িত্ব পালন করছেন এবং কাউন্সিলের কাজ সম্পন্ন করার ব্যস্ততায় দেখা যাচ্ছে। তবে তৃণমূল নেতাকর্মীদের দাবি দীর্ঘদিন রাজপথ আন্দোলন সংগ্রামে থাকা ত্যাগী নেতাদেরকে নেতা নির্বাচিত করা হউক।






Related News

Comments are Closed