Main Menu

গোবিন্দগঞ্জে গণধর্ষণ মামলায় প্রেমিকসহ আটক ৪


গাইবান্ধা প্রতিনিধি: গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ পৌরসভার শিববাড়ি এলাকায় বিয়ের প্রলোভনে ডেকে নিয়ে প্রেমিক ও তার বন্ধুরা মিলে একটি বাড়িতে দু’দিন আটকে রেখে এক তরুণী (১৯)কে গণধর্ষণ করেছে। এ ঘটনায় পুলিশ শুক্রবার রাতে ৪ জনকে আটক করে।
পুলিশ জানায়, ওই মেয়ের সাথে পৌর এলাকার চাষকপাড়া গ্রামের আনারুল হকের ছেলে শাহাদত হোসেনের মোবাইল ফোনের মাধ্যমে ফরিদপুর জেলার চক হরিরামপুর গ্রামের ওই তরুণীর সাথে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। দীর্ঘদিন ধরে এ সম্পর্ক চলাকালে বিয়ের কথা বলে গত বুধবার ওই তরুণীকে নিজ এলাকায় ডেকে আনে শাহাদত। ওই তরুণী গোবিন্দগঞ্জে এলে শাহাদত পৌরসভার শিববাড়ী এলাকার একটি বাড়িতে তুলে তাকে আটকে রাখে। পরে শাহাদত ও তার বন্ধুরা মিলে ওই তরুণীকে গণধর্ষণ করে। সেখানে দু’দিন ধরে নির্যাতনের শিকার হয়ে তরুণী ওই বাড়ি থেকে কৌশলে বের হয়ে গত শুক্রবার সন্ধ্যায় পালিয়ে গোবিন্দগঞ্জ থানায় গিয়ে অভিযোগ করে। ওই অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশের একাধিক টিম পৌর এলাকার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে ঘটনার সাথে জড়িত ৪ জনকে আটক করে। আটক যুবকরা হলো- শাহাদৎ হোসেন (২০) ও তার সহযোগী বন্ধু ফুলবাড়ী নাচাই কোচাই গ্রামের আব্দুর রহমান সরকারের ছেলে জহুরুল সরকার (২৬), পৌরসভার বোয়ালিয়া (নয়াপাড়া) গ্রামের আব্দুল হামিদের ছেলে জাহাঙ্গীর মিয়া (৩৫), থানাপাড়া (কসাইপাড়া) গ্রামের মৃত ইউনুস আলীর ছেলে জাহিদ হাসান (২৭)।
গোবিন্দগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) একেএম মেহেদী হাসান জানান, ধর্ষণের সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে বিরুদ্ধে নারী-শিশু নির্যাতন দমন আইনে থানায় একটি মামলা হয়েছে। অভিযুক্ত চার আসামীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। অন্য আসামীদের আটক করতে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।






Related News

Comments are Closed