Main Menu

র‌্যাব-১১ এর অভিযানে ২৪ কেজি গাঁজা ও ৪৫ বোতল ফেন্সিডিল উদ্ধারসহ ০৪ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার।

প্রতিনিধি: নারায়নগঞ্জের রুপগঞ্জ ও সোনারগা থেকে ২১ সেপ্টেম্বর সোমবার দুপুরে র‌্যাব-১১, সিপিএসসি, নারায়ণগঞ্জ এর বিশেষ অভিযানে গোপন তথ্যের ভিত্তিতে নারায়ণগঞ্জ জেলার রূপগঞ্জ থানাধীন খালপাড় সাকিনস্থ সেকেন্দার পেট্রোল পাম্প এর সামনে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কে পাকা রাস্তার উপর চেকপোস্ট স্থাপন করে ব্রাক্ষণবাড়ীয়া থেকে ঢাকাগামী একটি বাস তল­াশী করে ২৪ কেজি গাঁজা, ০৩টি মোবাইল ফোন উদ্ধারসহ মাদক ব্যবসায়ী ১। মোঃ মনির হোসেন (৩৫), ২। মোঃ সালাম মিয়া (৩২) ও ৩। মোঃ সৈয়দ হোসেন (৩২)’দেরকে গ্রেফতার করা হয় এবং অপর একটি পৃথক অভিযানে নারায়ণগঞ্জ জেলার সোনারগাঁ থানাধীন কাঁচপুর ব্রীজ সংলগ্ন সোনাপুর কলাপট্টি বাজারস্থ কালাম ট্রেডার্স এর সামনে হতে ৪৫ বোতল ফেন্সিডিল উদ্ধারসহ মাদক ব্যবসায়ী মোঃ আশরাফ উদ্দিন (৫২)’কে গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতারকৃতদেরকে জিজ্ঞাসাবাদ ও প্রাথমিক অনুসন্ধানে জানা যায়, গ্রেফতারকৃত মাদক ব্যবসায়ী মোঃ মনির হোসেন (৩৫) ও মোঃ সৈয়দ হোসেন এর বাড়ী ব্রাক্ষণবাড়ীয়া জেলার ব্রাক্ষণবাড়ীয়া সদর থানাধীন বড়হরণ এলাকায় এবং মোঃ সালাম মিয়া’র বাড়ী ব্রাক্ষণবাড়ীয়া জেলার ব্রাক্ষণবাড়ীয়া সদর থানাধীন বাটপাড়া এলাকায়। গ্রেফতারকৃত আসামীরা স্বীকার করে যে, তারা দীর্ঘদিন ধরে পরস্পর যোগসাজশে আর্থিকভাবে লাভবান হওয়ার জন্য অবৈধভাবে পরিবহনযোগে জুট কাপড় বহনের আড়ালে ব্রাক্ষণবাড়ীয়া জেলা হতে নিষিদ্ধ মাদকদ্রব্য গাঁজা নিয়ে এসে নারায়ণগঞ্জ, নরসিংদী, ঢাকা এবং এর আশপাশের এলাকায় গাঁজা বিক্রয় ও সরবরাহ করে আসছিল। পৃথক অপর অভিযানে গ্রেফতারকৃত আসামী মোঃ আশরাফ উদ্দিন এর বাড়ী হবিগঞ্জ জেলার চুনারুঘাট থানাধীন টেগেরঘাট এলাকায়। জিজ্ঞাসাবাদে সে স্বীকার করে যে, দীর্ঘদিন যাবৎ অবৈধভাবে কুমিল­া সীমান্ত দিয়ে অভিনব কায়দায় নিষিদ্ধ মাদকদ্রব্য ফেন্সিডিল বাংলাদেশে প্রবেশ করায় এবং বিশেষ কৌশলে পরিবহন করে নিয়ে এসে ঢাকা ও নারায়ণগঞ্জ সহ দেশের বিভিন্ন স্থানে বিক্রয় ও সরবরাহ করে আসছে। মাদকের বিরুদ্ধে র‌্যাবের অভিযান অব্যাহত থাকবে।

গ্রেফতারকৃত আসামী’দের বিরুদ্ধে রূপগঞ্জ ও সোনারগাঁ থানায় মামলা দায়ের প্রক্রিয়াধীন।






Related News

Comments are Closed