Main Menu

টাকা চুরির দায়ে : চাপাতি দিয়ে কুপিয়ে যখম

স্টাফ রিপোর্টার, ঝিনাইদহঃ ঝিনাইদহ জেলার মহেশপুর উপজেলায় টাকা চুরির ঘটনাকে কেন্দ্র করে হোটেল মালিকের ছেলের চাপাতির কোপে এক কিশোর মারাত্বক জখম হয়েছে। ৮ই সেপ্টেম্বর মঙ্গলবার দুপুরে ইসরাফিল (১৭) ও তার দুই খালাতো ভাই বসেছিল নেপা বাজারে খায়রুল ইসলামের খাবার হোটেলে। তারা হোটেল থেকে উঠে যাওয়ার সময় হোটেল মালিক খাইরুল ইসলামের পুত্র নাজমুল হোসেন তাদেরকে ডেকে বলে টাকা চুরি করে নিয়ে চলে যাচ্ছিস। তখন তারা আবার হোটেলে আসে এসে বলে তুই আমাদেরকে চেক কর আমাদের কাছে কোন টাকা নেই পরে চেক করে তাদের কাছে কোন টাকা পাওয়া যায়নি। এই নিয়ে তাদের মধ্যে কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে হাতাহাতির সৃষ্টি হয় পরে হোটেল মালিক খায়রুল ইসলামের পুত্র নাজমুল হোসেন সিঙ্গারা কাটা চাপাতি দিয়ে ইসরাফিল হোসেন কে আঘাত করলে তার গলা কেটে যায়। গলা কেটে যাওয়ায় গলা দিয়ে প্রচুর রক্তক্ষরণ হতে থাকে তখন স্থানীয়রা তাকে দ্রæত উদ্ধার করে পার্শ্ববর্তী বাকোশপোতা বাজারে ক্লিনিকে নিয়ে আসে।নেপা বাজারে সাইকেল মেকানিক প্রত্যক্ষদর্শী আব্দুল কালাম ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলে তারা হাতাহাতির এক পর্যায়ে নাজমুল হোসেন সিঙ্গারা কাটা দাশা দিয়ে ইসরাফিল হোসেন কে আঘাত করলে তার গলা কেটে যায়। এই বিষয়ে খায়রুল ইসলামের ও তার ছেলের সাথে যোগাযোগ করতে চাইলে কোন ভাবে যোগাযোগ করা যায়নি। ইসরাফিল হোসেন নেপা গ্রামের মফিজুল ইসলামের পুত্র। ইসরাফিল হোসেন আহত অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি আছে। তার গলায় ৬ টি সেলাই দেয়া হয়েছে। তার অবস্থা আশঙ্কাজনক।






Related News

Comments are Closed