Main Menu

সিদ্ধিরগঞ্জে বিট পুলিশিং কার্যক্রম উদ্বোধন

নাসিক ৩নং ওয়ার্ডে বিট পুলিশিং কার্যক্রম উদ্বোধন। গত রোববার নিমাইকাশারী এলাকার দুলাল গার্ডেন সিটিতে এ কার্যক্রম উদ্বোধন করা হয়।
বীর মুক্তিযোদ্ধা শহীদুল আলমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) ইশতিয়াক আশফাক রাসেল। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, ইন্সপেক্টর (অপারেশন) রুবেল হাওলাদার। অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে আরো উপস্থিত ছিলেন, বীর মুক্তিযোদ্ধা আবু জাফর টিপু, সোনা মিয়া, গোলাম মেম্বার, সাহাজান সাজু, ডাঃ রফিকুল ইসলাম পল্লব, মাহাবুবুর রহমান লাল চাঁন, হাজী জাহাঙ্গীর হোসেন, হাজী ফারুকুল ইসলাম, হাজী আব্দুল আজিজ, ফজলুল হক, সেলিম মিয়া, সাইফুল ইসলাম, লিটনসহ স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তি এবং কমিউনিটি পুলিশিংয়ের নেতৃবৃন্দরা। বিট ইনচার্জ হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন, সিদ্ধিরগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক গৌতম তেওয়ারী ও সহকারী উপ-পরিদর্শক আব্দুর রহিম (পিপিএম)। অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন, জনসাধারণের দ্বারপ্রান্তে পুলিশের সেবা পৌছে দিতে ওয়ার্ডব্যাপী চালু করা হয়েছে বিট পুলিশিং কার্যক্রম। এর ফলে সাধারণ মানুষকে এখন থেকে আর থানায় ছুটে যেতে হবে না। নিজ ওয়ার্ডেই পাবে পুলিশের কাছে আইনি সহায়তা। সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ, মাদক, ইভটিজিং, বাল্য বিয়ে ও যৌতুকমুক্ত সমাজ গড়তে এবং সার্বক্ষণিক পুলিশিং সেবা প্রদান করার জন্য এই বিট পুলিশিং কার্যালয়ের দায়িত্বে নিয়োজিত থাকবে পুলিশ কর্মকর্তারা। কার্যালয়ে থাকবে অভিযোগ বক্স। যে কোন ধরনের অপরাধ ও গোপন তথ্য এবং অভিযোগ লিখে এ বক্সে ফেলতে পারবে সাধারণ মানুষ। অভিযোগ ও তথ্য তদন্ত সাপেক্ষে পুলিশ আইনগত প্রয়োজনীয় ব্যাবস্থা গ্রহণ করবে। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি সিদ্ধিরগঞ্জ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) ইশতিয়াক আশফাক রাসেল বলেন, জনগণের ভালো থাকার জন্যই এতো আয়োজন। আপনাদের সন্তান কোথায় যায়, কী করে, কার সাথে মিশে, এসব খেয়াল রাখবেন, খোজ-খবর নেবেন। যেন সে কোনভাবেই মাদকাসক্ত না হয়। যদি একটি ছেলে মাদকাসক্ত হয়ে যায়, তার মধ্যে সব ধরণের অপরাধ বোধ সৃষ্টি হয় এবং একটি পরিবার ধ্বংস হয়ে যায়। এসব থেকে পরিত্রাণ পেতে ধর্মীয় মূল্যবোধ খুবই গুরুত্বপূর্ণ। ধর্মীয় এবং সামাজিক শিক্ষায় শিক্ষিত করতে পারলে সমাজে অপারাধ কমে যাবে। বিশেষ অতিথি সিদ্ধিগঞ্জ থানার পরিদর্শক (অপারেশন) রুবেল হাওলাদার বলেন, আমরা জনতার পুলিশ হয়ে সাধারণ মানুষের জন্য কাজ করতে চাই। নারায়গঞ্জের পুলিশ সুপার আপনাদের জন্য কাজ করছেন, আর তা বাস্তবায়নে আমরা চেষ্টা করে যাচ্ছি। এসময় পুলিশের কার্যক্রমকে বেগবান করতে ওয়ার্ডবাসীর সহযোগীতা কামনা করেন পুলিশের এই কর্মকর্তা। পাশাপাশি আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হয়ে সব ধরণের বেআইনি কাজ থেকে জনসাধারণকে বিরত থাকার আহŸান জানান তিনি।#






Related News

Comments are Closed