Main Menu

পিবিআই’র এ এস আই আমিরুলের বিরুদ্ধে পুলিশ হেড কোয়ার্টার্সে অভিযোগ দায়ের


প্রতিনিধি: পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন(পিবিআই)’ নারায়ণগঞ্জ জেলায় কর্মরত এএসআই আমিরুল ইসলামের বিরুদ্ধে বিভিন্ন দপ্তরে অভিযোগ দায়ের। বুধবার (২৬’শে আগষ্ট) ২০ইং তারিখে মিজমিজি মজিববাগ এলাকাবাসী পুলিশ হেড কোয়ার্টার্স, পিবিআই হেড কোয়ার্টার্স ও দুদক কার্যালয়ে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন ।
অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, নারায়ণগঞ্জ জেলার সিদ্ধিরগঞ্জ থানার মিজমিজি পূর্ব মজিববাগ এলাকার কতেক স্থায়ী বাসিন্ধা। আপনার অধিনস্থ পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন(পিবিআই) নারায়ণগঞ্জ জেলায় কর্মরত এএসআই আমিরুল ইসলাম। তিনি দীর্ঘ দিন যাবৎ নারায়ণগঞ্জ জেলায় চাকরি করে আসছেন। এএসআই আমিরুল ইসলামের আমাদের এলাকায় একটি বহুতল ভবন, কয়েকটি খালি প্লটসহ বেশ কয়েকটি বাড়ী ও গাড়ীর মালিক বনে গেছেন। আদমজি ইপিজেডে বিশাল বাহিনী দ্বারা জুট সেক্টর নিয়ন্ত্রন করে আসছেন। এএসআই আমিরুল ইসলাম সিদ্ধিরগঞ্জ থানা পুলিশের কনষ্টবল (চালক) থাকা অবস্থায় কিছুই ছিল না। বর্তমানে পিবিআইতে কর্মরত থাকা অবস্থায় পদোন্নতি পেয়ে বিশাল অর্থ সম্পদের মালিক বনে গেছেন। এএসআই আমিরুল ইসলামের অত্যাচার এতটাই বেড়ে গেছে যে অত্র এলাকায় নতুন কিছু মানুষ জায়গা কেনার পরেও জায়গায় যেতে পারছে না, কারণ আমিরুল ইসলাম তাদের কাছ থেকে মোটা অংকের অর্থ দাবি করছে অন্যথায় নামমাত্র মূল্যে সে জমি কিনে নিতে চাচ্ছে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ভুক্তভোগী সিদ্ধিরগঞ্জ পাওয়ার স্টেশনে কর্মরত সরকারি ড্রাইভার। আরো অনেক নিরীহ বাড়িওয়ালাদের উপরে সে বিভিন্নভাবে অন্যায় অত্যাচার ও জুলুম করে আসছে আমিরুল ইসলাম। এলাকায় মসজিদুল আউলিয়া জামে মসজিদ নামে একটি মসজিদ রয়েছে। এএসআই আমিরুল ইসলাম পুলিশের প্রভাব খাটিয়ে উক্ত মসজিদের সাধারণ সম্পাদক বনে গেছেন। আমিরুলের বিরুদ্ধে এলাকার সাধারন জনগন ভয়ে কিছু বলতে পারেনা। কিছু বললে মিথ্যা মামলার ভয় দেখিয়ে হুমকি দিয়ে আসছে। আরো জানা যায়, পিতা এএসআই আমিরুল ইসলামের প্রভাব খাটিয়ে তাহার ছেলে আব্দুলাহ আল সাইফ এলাকায় বিভিন্ন অপকর্ম করে বেরাচ্ছে। এএসআই আমিরুল ইসলামের বিশাল অর্থ সম্পদের মালিক হওয়ার ব্যাপারে তদন্ত সাপেক্ষে ও তার ছেলে আব্দুলাহ আল সাইফের হাত থেকে এলাকাবাসীকে স্বস্তিতে রাখতে সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন জরুরী। এ ব্যাপারে পিবিআই নারায়ণগঞ্জের এএসআই আমিরুল ইসলাম বলেন, এ ব্যাপারে আমার জানা নেই। মসজিদ কমিটির ব্যাপারে আমি থাকব না বলে লিখিত ভাবে জানিয়ে দিয়েছি।






Related News

Comments are Closed