Main Menu

নওগাঁ – ৬ আসনের উপনির্বাচনে আলোচনার শীর্ষে মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মমতাজ বেগম

সোহেল রানা,নওগাঁ : নওগাঁ – ৬ (আত্রাই-রাণীনগর) আসনে নির্বাচিত সংসদ সদস্য ইসরাফিল আলম গত ২৭ জুলাই মৃত্যুবরণ করায় এ আসনটি শূন্য হয়েছে। এ আসনের উপ-নির্বাচনে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন পেতে প্রায় ৩৪ জন মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছেন। তাঁরা প্রত্যেকেই নিজেদের বিষয়ে আশাবাদ ব্যক্ত করলেও এলাকাবাসী রয়েছেন দুশ্চিন্তায়। এই আসনের ভোটাররা বলছেন যোগ্য ব্যাক্তকে নির্বাচিত না করতে পারলে আবারও উত্তপ্ত হতে পারে এই নির্বাচিত এলাকা। জাতীয় পার্টিও ছেড়েছে মনোনয়ন ফরম। আর কেন্দ্রীয় সিদ্ধান্তের অপেক্ষায় রয়েছে বিএনপি।
নওগাঁ – ৬ আসনের উপ-নির্বাচন ঘিরে স্বপ্ন দেখতে শুরু করেছেন ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের স্থানীয় ৩৪ জন নেতাকর্মীরা। তবে নৌকার প্রার্থী হিসেবে ত্যাগী ও পরীক্ষিত আওয়ামী লীগ নেএী দুই বার নির্বাচিত মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মমতাজ বেগমের নাম আলোচনার শীর্ষে। এ আসনে নৌকার বিজয় নিশ্চিত করতে দীর্ঘ সময় ধরে অবদান রাখা এ  নেএীকে এবার মূল্যায়ন করা হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করছেন স্থানীয়রা।
অাএাই  থানা আওয়ামী লীগের মহিলা লীগের   সভাপতি এবং নওগাঁ জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সদস্য ও পরপর বার নির্বাচিত মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মমতাজ বেগমের নাম অাএাই স্থায়ীভাবে বসবাস করছেন। বিভিন্ন প্রাকৃতিক দুর্যোগের সময় ত্রাণ সহায়তাসহ নানা সামাজিক কর্মকাণ্ডের জন্য তিনি প্রশংসিত।

রাজনীতিতে ১৯৯০সালে ছাত্রীলীগে যোগদানের মাধ্যমে আনুষ্ঠানিকভাবে যাত্রা শুরু করেন। ১৯৯৬ সালে অাএাই থানা মহিলা লীগের সদস্য, ২০০৬ সালে অাএাই থানা মহিলা লীগের  যুগ্ম-অাহবায়োগ  ২০০৮ সালে অাএাই  থানা মহিলালীগের সাধারণ সম্পাদক, ২০১৪ সালে অাএাই থানা মহিলা লীগের সভাপতি, পরপর দুই বার নির্বাচিত মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ২০২০সালের উপনির্বাচনে নওগাঁ-৬, (রাণীনগর-আত্রাই)আসনে আওয়ামী লীগ দলীয় মনোনয়ন প্রার্থী। 
দলকে সুসংগঠিত করতে ও এই অঞ্চলের শাক্তি বজায় রাখতে মমতাজ বেগমকে মনোনয়ন দেওয়া সঠিক সিদ্ধান্ত হবে বলে অনেকের মত। জনপ্রিয়তার বিচারেও পরিশ্রমী, সহজ-সরল, বিনয়ী ও মিষ্টভাষী এবং মিশুক মমতাজ বেগম এগিয়ে রয়েছেন বলে স্থানীয় লোকজনের ধারণা।
জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় ভাইস চেয়ারম্যান ও নওগাঁ জেলার সভাপতি তোফাজ্জল হোসেন বলেন, জাতীয় পার্টিও ছেড়েছে মনোনয়ন ফরম। যোগ্য ব্যক্তিতে মনোনয়ন দিয়ে এই আসনটি নির্বাচনের মাধ্যমে এই আসনটি নেয়া হবে নিজেদের দখলে।আর বিএনপি বলছেন কেন্দ্র সিদ্ধান্ত দিলে ও সুষ্ঠ্য নির্বাচন হলে এই আসনটি আসবে তাদের দখলে। যোগ্য ব্যাক্তকে নির্বাচিত করে এই এলাকে জঙ্গি মুক্ত না রাখতে পারলে আবারও হতে পারে উত্তপ্ত। এমনটিই আশংকা করছেন নওগাঁবাসী।






Related News

Comments are Closed