Main Menu

কেশবপুরে মাস্ক ব্যবহার না করায় ২০ জনকে অর্থদন্ড

শামীম আখতার, ব্যুরো প্রধান (খুলনা) কেশবপুরে ভ্রাম্যমাণ আদালত ২০ জনকে অর্থদন্ড প্রদান করেছেন। উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট ইরুফা সুলতানা মঙ্গলবার বিকেলে সরকারি নির্দেশনা অমান্য করে মাস্ক ব্যবহার না করার অপরাধে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে ওই অর্থদন্ড প্রদান করেন।
ভ্রাম্যমাণ আদালত সূত্রে জানা গেছে, কেশবপুর পৌর শহরের থানার মোড় ও ত্রিমোহনী মোড় এলাকায় সরকারি নির্দেশনা অমান্য করে মাস্ক ব্যবহার না করার অপরাধে উপজেলার সাবদিয়া গ্রামের মিজানুর রহমানের ছেলে আবু রায়হানকে ২০০ টাকা, সাতবাড়িয়া গ্রামের নিছার আলীর ছেলে শাবুলকে ৫০০ টাকা, বাজিদপুর গ্রামের কামরুজ্জামানের ছেলে রাব্বী হাসানকে ২০০ টাকা, মজিদপুর গ্রামের আবু সাঈদের ছেলে মাসুম মোড়লকে ২০০ টাকা, প্রতাপপুর গ্রামের আব্দুল রাজ্জাকের ছেলে আলী হাসানকে ২০০ টাকা, বালিয়াডাঙ্গা গ্রামের শ্যামলের ছেলে বাপ্পা বসুকে ৫০০ টাকা, কেশবপুর গ্রামের আব্দুল আজিজের ছেলে সেলিম হোসেনকে ২০০ টাকা, বড়েঙ্গা গ্রামের আবু বক্করের ছেলে আব্দুর রহমানকে ৫০০ টাকা, মধ্যকুল গ্রামের আব্দুস সাত্তারের ছেলে ওলিয়ার রহমানকে ২০০ টাকা, ভোগতী গ্রামের হকের ছেলে আজাদকে ৫০০ টাকা, বাঁকাবর্শী গ্রামের সিরাজুল ইসলামের ছেলে আসাদ উজ জামানকে ৫০০ টাকা, কন্দর্পপুর গ্রামের সেকের আলীর ছেলে ইউনুসকে ২০০ টাকা, মির্জাপুর গ্রামের আব্দুল খালেকের ছেলে আজিজুর রহমানকে ২০০ টাকা, কোমরপোল গ্রামের আবু মুসার ছেলে আমিনুর রহমানকে ২০০ টাকা, পাথরা গ্রামের জসিম উদ্দিনের ছেলে বোরহানকে ২০০ টাকা, মনিরামপুর উপজেলার হাসাডাঙ্গা গ্রামের আবদুল হামিদের ছেলে আবু সাঈদকে ২০০ টাকা, চালুয়াহাটি গ্রামের আব্দুল ওহাবের ছেলে রবিউল ইসলামকে ৫০০ টাকা, কাশিমনগর গ্রামের গোলাম মোস্তফার ছেলে জাহিদকে ২০০ টাকা, তালা উপজেলার নূর আলীর ছেলে শহিদকে ২০০ টাকা এবং আব্দুস সাত্তার শেখের ছেলে ফিরোজ হোসেনকে ২০০ টাকা করে অর্থদন্ড প্রদান করেছেন। এ সময় তিনি মাস্ক ব্যবহার না করা ব্যক্তিদের মাঝে মাস্ক বিতরণ এবং মাস্ক পরে ঘর থেকে বাইরে বের হওয়ার জন্য আহ্বান জানিয়েছেন।
এ ব্যাপারে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ইরুফা সুলতানা বলেন, সরকারি নির্দেশনা অমান্য করে মাক্স ছাড়া কেউ যদি চলাফেরা করে সেক্ষেত্রে আরো কঠোর শাস্তির আওতায় নিয়ে আসা হবে। করোনা পরিস্থিতি মোকাবেলা করার জন্য এ অভিযান অব্যাহত থাকবে।






Related News

Comments are Closed