Main Menu

গাড়ী চোর চক্রের ০২ সক্রিয় সদস্য গ্রেফতার

২২ জুলাই রাতে র‌্যাব-১১, সিপিএসসি কোম্পানী’র টানা ৩০ ঘন্টার বিশেষ অভিযানে সিদ্ধিরগঞ্জের শিমরাইল এলাকা হতে সংঘবদ্ধ গাড়ী চোর চক্রের ০২ জন সক্রিয় সদস্য’কে হাতে-নাতে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃতরা হলো ১। মোঃ কামাল হোসেন (৩৮) ও ২। মোঃ ইমরান (৩৯)। গ্রেফতারকৃত আসামীদ্বয়ের স্বীকারোক্তি মোতাবেক নারায়ণগঞ্জ জেলার সিদ্ধিরগঞ্জ থানাধীন গোদনাইল এলাকা হতে চোরাইকৃত ০১টি পিক-আপ গাড়ি উদ্ধার করা হয়। পিক-আপ গাড়িটি গত ২০ জুলাই ২০২০ ইং তারিখে কুমিল­া জেলার বরুড়া থানা এলাকা হতে চুরি করে নারায়ণগঞ্জে নিয়ে এসে গাড়ির মালিকের কাছে ফোন করে বিকাশের মাধ্যমে টাকা দাবি করে আসছিল। এই ঘটনায় কুমিল­া জেলার বরুড়া থানায় একটি নিয়মিত মামলা রুজু হয়।

গ্রেফতারকৃত আসামীদ্বয়কে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ ও অনুসন্ধানে জানা যায়, তারা একটি সংঘবদ্ধ চোর চক্র। এই চোর চক্রের সদস্যরা পরস্পর যোগসাজশে দীর্ঘদিন যাবৎ দেশের বিভিন্ন জেলা হতে গাড়ি চুরি করে নারায়ণগঞ্জে নিয়ে আসে। পরবর্তীতে গাড়ির বডি বা ডকুমেন্ট হতে চালক বা মালিকের নাম্বার সংগ্রহ করে ফোন করে বিকাশের মাধ্যমে মোটা অঙ্কের টাকা দাবি করে। দাবিকৃত টাকা ফেরত পেলে অনেক সময় গাড়ি ফেরত দেয়, অন্যথায় চোরাই গাড়ি বিক্রি করে দেয়। র‌্যাব-১১ এর অনুসন্ধানে চুরি সংক্রান্ত ঘটনার সত্যতা পেয়ে চোর চক্রকে সনাক্তকরণ ও জড়িতদের আইনের আওতায় আনার জন্য গত ২১ জুলাই ২০২০ইং বিকালে অভিযান শুরু করে ২২ জুলাই ২০২০ইং সন্ধ্যায় নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জের শিমরাইল এলাকা হতে চোরচক্রের মূলহোতাসহ উপরোক্ত ০২জন আসামীকে গ্রেফতার করা হয় এবং গ্রেফতারকৃত আসামীদ্বয়ের স্বীকারোক্তি মোতাবেক রাত ১০.৩০ ঘটিকায় নারায়ণগঞ্জ জেলার সিদ্ধিরগঞ্জ থানাধীন গোদনাইল এলাকা হতে চোরাইকৃত পিক-আপ গাড়িটি উদ্ধার করা হয়।

গ্রেফতারকৃত আসামীদের বিরুদ্ধে কুমিল­া জেলার বরুড়া থানায় আইনানুগ কার্যক্রম গ্রহণের জন্য হন্তান্তর কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন।






Related News

Comments are Closed