Main Menu

কেশবপুরে সৎ মা ও ভাই কর্তৃক পিতার অবসর ভাতা আত্মসাতের অভিযোগ

শামীম আখতার, ব্যুরো প্রধান (খুলনা)যশোরের কেশবপুরে সৎ মা ও ভাইদের দ্বারা সরকারি চাকুরীজীবী পিতার পেনশনের টাকা আত্মসাতের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় অপর সৎ ভাই আ: কাদের সরদার বাদি হয়ে কেশবপুর থানায় ৭ জনের নাম উল্লেখ করে একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে।
থানার অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার সাগরদাঁড়ি গ্রামের মৃত রজব আলী সরদার পেশায় ছিলেন এক জন সরকারি বন বিভাগের কর্মচারী। তিনি প্রায় ৯ বছর আগে চাকুরী থেকে অবসরে যান। তখন বড় স্ত্রী, তার ছেলে-মেয়ে এবং ছোট স্ত্রী ও তার ছেলে-মেয়েকে বঞ্চিত করে মেঝ স্ত্রী ও তার ছেলে-মেয়েরা পেনশনের সমুদয় টাকা উত্তোলন করে আত্মসাৎ করেছে। রজব আলী সরদার ৩টি বিয়ে করেছিলেন। চলতি বছরের ২০ মার্চ রজব আলী সরদার মারা যান। মৃত্যুকালে ৩ স্ত্রীসহ ৮ ছেলে ও ৯ মেয়ে রেখে যান। মৃত্যু পরবর্তী মাসিক পেনশন থেকেও বড় স্ত্রী, তার ছেলে-মেয়ে এবং ছোট স্ত্রী ও তার ছেলে-মেয়েকে বঞ্চিত করে মেঝ স্ত্রী ও তার ছেলে-মেয়েরা তাদেরকে একমাত্র ওয়ারেশ দেখিয়ে বড়-ছোট স্ত্রী এবং তাদের ছেলে-মেয়েকে বঞ্চিত করে মেঝ স্ত্রী ও তার ছেলে-মেয়েরা পেনশনের টাকা উত্তোলন করছে। উল্লেখ্য, মেঝ স্ত্রী ও তার ছেলে-মেয়েরা অদ্যাবধি মৃত রজব আলী সরদারের পেনশন ভাতার বই এবং আইডি কার্ড অসৎ উদ্দেশ্যে আটকে রেখেছে। সে কারণে মৃত রজব আলী সরদারের ৩ স্ত্রীসহ ৮ ছেলে ও ৯ মেয়েরা পেনশনের টাকার সমভাবে পেতে পারে তার জন্য বাদী উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।
এ ব্যাপারে কেশবপুর থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. জসীম উদ্দীন বলেন, অভিযোগ পেয়েছি, তদন্ত পূর্বক আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।






Related News

Comments are Closed