Main Menu

করোনায় রোগী কমেছে গোবিন্দগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে

গোবিন্দগঞ্জ প্রতিনিধিঃ করোনা ভাইরাস কোভিড-১৯ এর প্রভাবে দেশে অসংক্রমিত রোগের চিকিৎসা সেবা নেওয়ার হার কমেছে আশংকাজনক হারে। করোনা আক্রান্তদ হওয়ার ভয়ে সাধারণ রোগের চিকিৎসা নিচ্ছে না অনেকেই। এতে সাধারণ রোগগুলো বৃদ্ধি পাচ্ছে এবং শরীরে বাসা বেধে অসংক্রমিত রোগ গুলো জটিল থেকে জটিলতর হচ্ছে। এই অবস্থা বেশি দিন চলতে থাকলে সাধারণ মানুষের স্বাস্থ্য বিপর্যয় দেখা দিবে। বৃদ্ধি পাবে অসংক্রমিত রোগ। সারা দেশের ন্যায় গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিত্রও ব্যতিক্রম নয়। উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে সাধারণ রোগের সেবা গৃহীতার সংখ্যা তিন ভাগের এক ভাগের কমে নেমে এসেছে।

গোবিন্দগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে করোনা শুরুর আগে যেখানে দিনে বর্হি বিভাগে গড়ে ১৮৫ থেকে ২১৫ জন পর্যন্ত সেবা নিয়েছে। সেই জায়গায় করোনার প্রভাবে সেবা নিচ্ছে গড়ে প্রতিদিন ৫৫ থেকে ৬০ জন। ভর্তি রোগীর ক্ষেত্রেও একই রকম চিত্র পাওয়া গেছে। করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব শুরুর আগে যেখানে গড়ে প্রতিদিন ৩৫ জন সেবা নিয়েছে। বর্তমানে সেই জায়গায় সেবা নিচ্ছে গড়ে ১৭ জন।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে বহি বিভাগে ২০২০ সালের জানুয়ারী মাসে সেবা নিয়েছে ৫,৫৬৯ জন, ফেরুয়ারি মাসে ৬,৪৫১ জন, মার্চ মাসে ৫,৮০৬। কিন্তু দেশে মার্চ মাসের শেষের দিকে করোনার প্রাদুর্ভাব শুরু হলে এপ্রিল মাসে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের বহি বিভাগে সেবা নিয়ে মাত্র ১,৮০১ জন। মে মাসে এই সংখ্যা আরও কমে এসে দাঁড়িয়েছে ১,৪৩৫ জনে।

একই রকম চিত্র ভর্তি রোগীর ক্ষেত্রেও। চলতি বছরের জানুয়ারী মাসে ভর্তি ছিল ১,০২১ জন, ফেরুয়ারি মাসে ১,১০১ জন আর মার্চ মাসে ৯৯২ জন। কিন্তু করোনার কারণে এপ্রিল মাসে সেবা নিয়েছে মাত্র ৪৯৩ জন এবং মে মাসে ৫৩২ জন।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক চিকিৎসক (আরএমও) ডা. রেজাউল করিম এই তথ্যের সত্যতা স্বীকার করে জানান, স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে সেবা দিতে কার্পণ্য করা হচ্ছে না। তবু এক অজানা ভীতিতে জনসাধারণ সাধারণ রোগের চিকিৎসা সেবা নিতে ভয় পাচ্ছে। এতে কমে গেছে হাসপাতালের বর্হি বিভাগ থেকে শুরু করে ভর্তি রোগীর সংখ্যা।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মজিদুল ইসলাম গত ১৪ জুন (রবিবার) তাঁর নিজের ফেসুবক আইডিতে ভয় না করে সচেতন হওয়ার আহবান জানিয়ে বলেন, প্রয়োজনে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এসে চিকিৎসা নিন এবং সুস্থ থাকুন।






Related News

Comments are Closed