Main Menu

সিদ্ধিরগঞ্জ থানা পুলিশের অভিযানে ১’হাজার পিছ ফেনসিডিল উদ্ধার, স্বাম-স্ত্রীসহ গ্রেফতার-৩

সিদ্ধিরগঞ্জ থানা পুলিশের অভিযানে ১’হাজার পিছ ফেনসিডিল উদ্ধার, স্বাম-স্ত্রীসহ গ্রেফতার-৩। বৃহস্পতিবার (৪’জুন) রাতে থানার নাসিক ২নং ওয়ার্ড মৌচাক মাদ্রাসা রোড এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করে। ধৃতদের বিরুদ্ধের গতকাল শুক্রবার পুলিশ বাদী হয়ে মাদক মামলা দায়ের পূর্বক ১০’দিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে প্রেরণ করে।
পুলিশ জানায়, নারায়ণগঞ্জ জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ক-অঞ্চল) মেহেদী ইমরান সিদ্দিকীর দিক নির্দেশনায় সিদ্ধিরগঞ্জ থানার অফিসার্স ইনচার্জ মোহাম্মদ কামরুল ফারুকের নেতৃত্বে ইন্সপেক্টর (তদন্ত) মোঃ আজিজুল হক, ইন্সপেক্টর(অপারেশন) রুবেল হাওলাদার, উপ-পরিদর্শক গৌতম তেওয়ারী ও সহকারী উপ-পরিদর্শক হেমায়েত উদ্দিন(পিপিএম) সঙ্গীয় ফোর্সসহ থানার মৌচাক মাদ্রাসা রোড এলাকায় অভিযান চালায়। উক্ত অভিযানে লালমনিরহাট জেলার সদর থানার কর্নপুর গ্রামের আবেদ আলীর ছেলে আশরাফ আলী ও তার স্ত্রী মুক্তাসহ নারায়ণগঞ্জ জেলার রুপগঞ্জ থানার বড়ালো গ্রামের আব্দুল হামিদের ছেলে জায়েদুল ইসলামকে গ্রেফতার করে। পরে তাদের দেখানে মতে মৌচাক মাদ্রাসা রোড এলাকার সাফায়েত হোসেন চৌধুরীর ভাড়া বাসা থেকে ৪’বস্তা (১’হাজার) পিছ ফেনসিডিল উদ্ধার করে। গতকাল শুক্রবার(৫’জুন) দুপুরে সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় এক সংবাদ সম্মেলনে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ক-অঞ্চল) মেহেদী ইমরান সিদ্দিকী এ তথ্য জানান। মেহেদী ইমরান সিদ্দিকী আরো জানান, গত বৃহস্পতিবার গভীর রাতে সিদ্ধিরগঞ্জ থানার মৌচাক মাদ্রাসা রোড এলাকায় শাফায়েত হোসেন চৌধুরীর বাড়ির ভাড়াটিয়ার বাসায় অভিযান চালায় পুলিশ। এ সময় পুলিশ আশরাফ আলী (৩৯) ও মুক্তা (২৯) দম্পতিকে গ্রেফতার করে। পরে তাদের দেয়া তথ্যমতে রাতেই জায়েদুল ইসলাম (২৫)কে রুপগঞ্জ এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয়। এই ফেনসিডিল গুলো ভারতের তৈরি। লালমনিরহাট জেলার সীমান্ত এলাকা হতে বিভিন্ন পরিবহনের মাধ্যমে এনে ঢাকা ও নারায়ণগঞ্জসহ আশেপাশের মাদক ব্যবসায়ীদের নিকট বিক্রি করতো বলে জানিয়েছে। এ ঘটনায় সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় একটি মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা দায়ে পূর্ব ধৃতদের ১০’দিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে প্রেরণ করে।






Related News

Comments are Closed