Main Menu

এতিমখানার আয় বছরে ১০ লক্ষ টাকা কমিটির উদাসীনতায় জরাজীর্ণ ভবন।

স্টাফ রিপোর্টারঃকুমিল্লা জেলারদিন মেঘনা থানায় অবস্থিত মাদ্রাসায় ইমদাদুল উলুম ইয়াতিমখানা। এখানে এতিম বাচ্চা আছেন ০৭জন কিন্তু সরকারি অনুদান পাচ্ছেন ২২ জনের আবার সমাজসেবা অধিদপ্তরে জমা দেওয়া আছে প্রায় ৭০ অধিক এতিমদের নাম। সমাজ সেবার নিয়ম অনুযায়ী কমিটির মেয়াদ দু’বছর আর একজন সভাপতি পদে অথবা সেক্রেটারি পদে সর্বোচ্চ দুইবার প্রতিনিধিত্ব করতে পারেন। কিন্তু এই মাদ্রাসায় ঘুরে দেখা যায় একজন সভাপতি এবং সেক্রেটারি পদে তারা ৪ বারের অধিক পদে বহাল রয়েছেন।সভাপতি মোঃ জয়নাল আবেদীন সরকার, পিতাঃ-মৃতঃ আব্দুর রহমান সরকার, এবং সেক্রেটারীঃ ইউনুস মিয়া ওরফে গরিব, পিতাঃ মৃতঃ গনি। গ্রামবাসীদের কাছ থেকে জানা যায় এতিমখানার নামে রয়েছে প্রায় ১০ বিঘা সম্পত্তিও একটি বাজার। বাজার থেকে প্রায় বছরে তিন থেকে চার লক্ষ টাকা আয় হয় এতিমখানার। আর সরকারি অনুদান আসে বছরে প্রায় ৫ লক্ষ টাকার উপরে। আর ১০ বিঘা সম্পত্তিতে চাষাবাদ করে যা আয় হয় তা সর্বমোট সরকারি অনুদান সহ বাজারসহ প্রায় ১০ লক্ষ টাকার উপরে আসে। আর এই জন্যই এই পদে থাকার জন্য সভাপতি এবং সেক্রেটারি নিজস্ব লোকজন কমিটি নিয়ে তারাই বারবার বিগত ১০ বছর যাবত সভাপতি এবং সেক্রেটারি পদে বহাল। যেখানে জরাজীর্ণ ভবনে থাকছে এতিম বাচ্চারা, যেকোনো মুহূর্তে ছাদ ভেঙে পড়তে পারে তাদের মাথায়। কর্তৃপক্ষের নিকট আকুল আবেদন এই যে বিষয়টি তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য অনুরোধ রইল। 






Related News

Comments are Closed