Main Menu

করোনা’র প্রতিকারে প্রচারভিযান চালালো সীমান্ত প্রেসক্লাব

বেনাপোল মোঃ রাসেল ইসলাম,বেনাপোল প্রতিনিধি: করোনা ভাইরাস যেভাবে ছড়ায়,এর লক্ষণ গুলো কি কি? এবং এর প্রতিরোধে করণীয় কি? এসব বিষয়ে জনমনে সচেতনতা আনতে করোনা প্রতিরোধের একটি পরিষেধক পরিসংখ্যান লিফলেট বিতরণ করলো যশোর জেলার সীমান্তবর্তী থানায় অবস্থিত সীমান্ত প্রেসক্লাব বেনাপোল। ক্লাবটি’র কার্য নির্বাহী কমিটি’র এক সিদ্ধান্তে শুক্রবার(২০ মার্চ) সকাল থেকে তারা এই লিফলেট বিতরণ প্রচারনা কার্যক্রম চালায়। ক্লাবটির প্রত্যেক সদস্য জুম্মা’র দিনে বেনাপোল তথা শার্শা উপজেলার প্রতিটি ওয়ার্ড/ মহল্লার মসজিদ- মাদ্রাসায় লিফলেট বিতরণ শুরু করে। বিকালে তারা বেনাপোল বন্দর এলাকা, বেনাপোল বাজার এলাকা, কাগজপুকুর বাজার এলাকা ও সর্বোপরি শার্শা উপজেলার জামতলা বাজার এলাকায় প্রচারণা চালায়। করোনা ভাইরাস লক্ষণে মানবদেহে যে সকল উপস্বর্গ দেখা দেয় যেমন – সর্দি, কাশি ,জ্বর, মাথাব্যথা, গলাব্যথা, মাংসপেশিতে ব্যথা, শ্বাসকষ্ট ,ইত্যাদি ৷ এছাড়া মারাত্মক পর্যায়ে অজ্ঞান হয়ে যাওয়া শিশু বৃদ্ধ ও কম রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা সম্পন্ন ব্যক্তিদের নিউমোনিয়া ব্রঙ্কাইটিস ৷ করোনা ভাইরাস যেভাবে ছড়ায়-মূলত বাতাসের AIR DROPLET এর মাধ্যমে, হাঁচি ও কাশির ফলে,আক্রান্ত ব্যাক্তিকে স্পর্শ করলে, ভাইরাস আছে এমন কোন কিছু স্পর্শ করে হাত না ধুয়ে মুখে,নাকে বা চোখে লাগালে,পয়োনিস্কাশন ব্যবস্থার মাধ্যমেও ছড়াতে পারে। এই লক্ষণগুলো থেকে মুক্তি পেতে হলে যেগুলি করতে হবে তা হল- মাঝে মাঝে সাবান- পানি বা স্যানিটাইজার দিয়ে হাত ধোয়া৷ হাত না ধুয়ে চোখ নাক মুখ ,স্পর্শ না করা, হাসি কাশি দেওয়ার সময় মুখ ঢেকে রাখা ঠান্ডা বা ফ্লু আক্রান্ত ব্যক্তির সাথে না মেশা, বন্য জন্তুু কিংবা গৃহপালিত পশুকে খালি হাতে স্পর্শ না করা, মাংস ও ডিম খুব ভালো ভাবে রান্না করা, মুখে মাক্স ব্যবহার করা প্রচুর ফলের রস ও পানি পান করা, হাসি- কাশি দেওয়ার পর রোগীর শুশ্রুষা করার পর,টয়লেট করার পর,পশুপাখি কিংবা পশুপাখির মল স্পর্শ করার পর এবং খাবার খাওয়া ও খাবার প্রস্তুত করার আগে ও পরে পরিস্কার করে হাত ধুতে হবে। আমরা জানি,করোনা ভাইরাস সংক্রমনের ফলে চীন সহ সারা-বিশ্বে এ মহামারী রোগ ছড়িয়ে পড়েছে। অনেকেই ধারনা করছেন ভাইরাসটি কোন একটি প্রাণী থেকে মানুষের দেহে ঢুকেছে এবং একজন থেকে আরেকজনের দেহে মিউটেশন পদ্ধতিতে এ ভাইরাস সংক্রমিত হচ্ছে। আবার কিছুদিন আগে খবরে প্রকাশিত হয়েছে ন্যাশনাল এ্যারোনটিকস এন্ড স্পেস এ্যাডমিনিস্ট্রেশন(নাসা)’র বিজ্ঞানীরা বলছেন, এ রোগ মহাকাশ থেকে এসেছে। ২০১৯ সালের ডিসেম্বরে শুরু হওয়া এই করোনা ভাইরাস নাসা কে ভাবিয়ে তুলেছে,তারা বলছেন,এশিয়ার বিভিন্ন অংশ এবং এর বাইরেও দ্রুত ছড়িয়ে পড়ছে এই ভাইরাস। সাধারন সতর্কতা অবলম্বন করে এই ভাইরাসটির সংক্রমন ও বিস্তারের ঝুকি কমিয়ে আনতে পারবে বলে তারা ধারনা করছেন। এদিকে,সীমান্ত প্রেসক্লাব বেনাপোল এর গ্রহন করা প্রচারনার কর্মসুচী কার্যক্রমকে সময়োপযোগী বলে এলাকার মানুষ সাধুবাদ জানিয়েছেন।






Related News

Comments are Closed