Main Menu

উওরায় সাংবাদিক লাঞ্ছিত অভিযোগ নিচ্ছে না ওসি৷

নিজস্ব প্রতিবেদনঃঢাকা থেকে প্রকাশিত আজকের কালের চিত্র পএিকার বার্তা সম্পাদক মোঃরাসেল হাসানের উপর সন্ত্রাসী হামলার ঘটনা ঘটেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।গত ১৫ ই মার্চ আনুমানিক দিবাগত রাত ১০ ঘটিকার সময় ৪/৫ জন মাদক ব্যবসায়ী দক্ষিণখান আইনুছবাগ একটি চায়ের দোকানের সামনে সাংবাদিক রাসেল হাসানকে ঘিরে ধরে, বিভিন্ন অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ করে এবং প্রাণনাশের হুমকি-ধামকি প্রদর্শন করে। নিরাপত্তার জন্য সাংবাদিক রাসেল হাসান দক্ষিণখান থানার গেলে ডিউটি অফিসার মুনসুর এ এস আই মফিজুলকে ঘটনাস্থলে পাঠায়। এ এস আই মফিজুল মাদক ব্যবসায়ী মিজান রাব্বি ও মোখলেসুর জনিকে ঘটনার বিস্তারিত জিজ্ঞেস করলে সাংবাদিক রাসেল হাসানের উপর চওড়া হয়ে পুলিশ অফিসারের সামনেই মিজান সহ তার বাহিনী হত্যার উদ্দেশ্যে সাংবাদিক রাসেল হাসানের উপর হামলা চালায়এবং কোমরে থাকা একটি ক্যামেরা ছিনিয়ে নিয়ে যায়।কোনোক্রমে ঐ খান থেকে বেরিয়ে দক্ষিণখান থানার অফিসার ইনচার্জকে ঘটনার বর্ণনা দিলে অফিসার ইনচার্জ উচ্চস্বরে বলেন, আপনি আমার বিরুদ্ধে অনেক রিপোর্ট করেছেন, আমি কোন মামলা নিতে পারবোনা। কিছু দিন আগেও সাংবাদিক রিয়াজ রহমান ও মানবাধিকার কর্মী জিয়ার উপর হামলা চালায় কিছু সন্ত্রাসী বাহিনী গত ২৫/০২/২০২০ তারিখে সাংবাদিক রিয়াজ রহমান ও জিয়া দক্ষিণখান থানায় জিডি করেন যাহার নং ১৪১৪ এবং১৪১৫ তদন্তর ভার দেওয়া হয়, এস আই নকিবকে কিন্তু কোন রকম কোন ব্যবস্থা গ্রহণ করেনি দক্ষিনখান থানা। । চিহ্নিত সন্ত্রাসী মিজান ও তার বাহিনীরা ঐ দিন থানায় গিয়ে অফিসার ইনচার্জ শিকদার শামীমের সাথে দেখা করে এবং সাংবাদিক সমাজকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখায়। মিজান সম্পর্কে আইনুছবাগ এলাকাবাসি আমাদের প্রতিবেদকে জানান,থানায় তদবির বাণিজ্য, মাদক ব্যবসা, নারী ব্যবসা থেকে শুরু করে সকল অপকর্মের সেল্টার দাতা মিজান।তিনি নিজেকে যুবলীগ নেতা পরিচয় দিয়ে এহেন কোন অপর্কম নেইযে করেনা । যুবলীগের কোন তালিকায় তার নাম খুঁজে পাওয়া যায়নি। ক্ষমতাসীন দলের রবিউল ইসলাম রবির আশীর্বাদে পরিপুষ্ট মিজান,তার নাম ভাঙ্গিয়ে দাপিয়ে বেড়াচ্ছে বিভিন্ন অপকর্মে।উক্ত বিষয় সম্পর্কে উওরা জোনের উপ-পুলিশ কমিশনার নাবিদ কামাল শৈবালকে জানালে, তিনি লিখিত একটি অভিযোগ জানাতে বলেন এবং গত ১৭ ই মার্চ উপপুলিশ কমিশনার কার্যালয় একটি লিখিত অভিযোগ জানান সাংবাদিক হাসান।






Related News

Comments are Closed