Main Menu

বড় ভাইকে পিটিয়ে হত্যার পর- ছোট ভাইকে হত্যার হুমকি

সিদ্ধিরগঞ্জে বড় ভাই শুভকে পিটিয়ে হত্যা করে এবার ছোট ভাইকে হত্যার হুমকি,মারধর, প্রশাসন নীরব। ছোট ভাই সৌরভসহ পরিবারের সকলকে হত্যা করার হুমকি দিল মাদক ব্যবসায়ী আলী নুরের ছেলে পারভেজ। এ ব্যাপারে সৌরভ গত ১৪’মার্চ ২০ইং তারিখে সিদ্ধিরগঞ্জ থানার সাধারন ডায়রী করলেও পুলিশ কোন ভূমিকা নিচ্ছে না। উল্লেখ্য গত ১৪’ফেরুয়ারি ২০ইং তারিখে শুভ হত্যার ঘটনায় ৩৩(২)২০ নং হত্যা মামলাটি তদন্ত করছেন সিদ্ধিরগঞ্জ থানা অফিসার ইনচার্জ কামরুল ফারুক। মামলা সূত্রে জানা যায়, গত বেশ কয়েক দিন পূর্বে সিদ্ধিরগঞ্জ শিমরাইল মধ্যপাড়া এলাকার আব্দুল আজিজের ছেলে আনিছকে মাদকসহ জেলা গোয়েন্দা পুলিশ গ্রেফতার করে। ধৃত আনিছ জামিনে বের হয়ে আসে। পরে আরো কয়েকজন মাদক ব্যবসায়ীরা একত্রিত হয়ে একই এলাকার মৃত আব্দুর রবের ছেলে শুভ তাকে ধরিয়ে দিয়েছে বলে বেধরক মারধর করে। মাদক ব্যবসায়ীদের মারের আঘাতে শুভ নিহত হয়। শুভকে হত্যা করায় শুভর মা শাহানাজ বেগম বাদী হয়ে ১৪’জনকে এজহার নামীয় আসামী করে সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করে। পুলিশ ঘটনার দিন এজহার নামীয় ৩’জনকে গ্রেফতার করলেও অধ্যবদি অন্য আসামীদের গ্রেফতার করছে না। আসামীরা স্থানীয় শক্তিশালি হওয়ায় বাদীসহ তার পরিবারের লোকজনকে বিভিন্ন ধরনের হুমকি দিচ্ছে। মামলা তুলে না নিলে বাদীর ছেলে সৌরভকে হত্যার উদ্দেশ্য মারধর করা কালে এলাকাবাসী এগিয়ে আসলে মাদক ব্যবসায়ী সন্ত্রাসীরা হুমকি দিয়ে পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় জিডি করা হয়। জিডিটি তদন্ত করছেন উপ-পরিদর্শক মোশারফ হোসেন। কাগজ কলমে অনেক কিছু থাকলেও পুলিশ এ হত্যা মামলাটি নিয়ে রহস্য-জনক আচরন করছেন। প্রশাসনকে সহায়তা করার অপরাধে শুভ নিহত হলেও শুভ হত্যার মামলাটি প্রশাসন নীরব ভুমিকা পালন করছে। মাদক ব্যবসায়ীদের নাসিক ৪নং ওয়ার্ড এলাকায় রীতিমত সহায়তা করছেন এলাকার মৃত রফিক মেম্বার ছেলে জাহাঙ্গীর হোসেন ও তার স্ত্রী সুমি বেগম বলে এলাকাবাসী জানায়। সুমির সাথে স্থানীয় প্রশাসনের যোগসাযোস রয়েছে বলে এলাকাবাসী জানায়। শুভ হত্যা মামলাটি ধামা চাপা দিতে সুমি ও তার স্বামী জাহাঙ্গীর হোসেন মরিয়া হয়ে উঠেছে। এলাকাবাসীর দাবি মামলাটি সিদ্ধিরগঞ্জ থানা থেকে বদলী করে ডিবি অথবা সিআইডিতে হস্থান্তর করা জরুরী। কারন মামলার তদন্ত যিনি করছেন তিনি রাষ্ট্রীয় কাজের বাহানা দিয়ে ঘুড়ে বেরাচ্ছেন। আর অপরদিকে আমাসীরা দলেবলে ঘুড়ে বেরাচ্ছে। এতে বাদীও তার পরিবার চরম নিরাপত্তা হীনতায় ভুগছে। মামলার আসামীরা হলো শিমরাইল এলাকার মৃত আজিজ মিয়ার ছেলে মোঃ আনিছ, তাহের আলীর ছেলে জনি, জনির স্ত্রী বিথী আক্তার, সিদ্দিকের ছেলে সজিব, শুক্কুর আলীর ছেলে টিটু, শাহজাহান@সাধুর ছেলে অনিক(গ্রেফতার), নজরুলের স্ত্রী হাসু বেগম, নজরুল, শাকিল, মৃত কফুল উদ্দিনের ছেলে সান্ত, আক্তার হোসেনের ছেলে হৃদয়, কবির খানের ছেলে রবিন, আতিকের স্ত্রী মারিয়া(গ্রেফতার) ও মৃত কুদ্দুস আলীর ছেলে আতিক(গ্রেফতার)। এ ব্যাপারে মামলার তদন্ত কর্মকতা সিদ্ধিরগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ কামরুল ফারুক বলেন, আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। তারা বারবার স্থান পরিবর্তন করে পালিয়ে বেরাচ্ছে।






Related News

Comments are Closed