Main Menu

সোনারগাঁয়ে আগুনে দগ্ধ একজনের মৃত্যু।

নারায়নগঞ্জ প্রতিনিধিঃ নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ের কাঁচপুরে গ্যাসের চুলার লিকেজ থেকে সৃষ্ট আগুনে দগ্ধ দম্পতির মধ্যে স্বামী আশরাফুল ইসলামের (৩৫) মারাগেছেন।
রোববার (১৫ মার্চ) সকাল ৮টার দিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে তার মৃত্যু হয়েছে। আগুনে আশরাফুলের শরীরের ৭৩ ভাগ পুড়ে গিয়েছিল।
ঢামেক হাসপাতাল পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ বাচ্চু মিয়া মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, মরদেহ হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে। তার স্ত্রী রোজিনা আক্তার এখনও বার্ন ইউনিটে ভর্তি আছেন। রোজিনার শরীরের ৬৩ শতাংশ পুড়েগেছে, তার অবস্থা আশঙ্কাজনক।
আশরাফুলের ভাতিজা আক্তারুজ্জামান জানান, আশরাফুল ইসলাম ও রোজিনা আক্তারের গ্রামের বাড়ি রংপুর জেলার কোতোয়ালি উপজেলায়। আশরাফুল বন্দর থানার মদনপুরে অবস্থিত ইপিলিয়ন গ্রæপের নিরাপত্তা কর্মী ও তার স্ত্রী রোজিনা সিদ্ধিরগঞ্জে আদমজী ইপিজেডের পোশাক কারখানা উর্মি গ্রæপে শ্রমিক হিসেবে কর্মরত ছিলেন।কয়েক বছর যাবত তারা গুলজার হোসেনের এই ফ্ল্যাটে থাকতেন । তাদের একমাত্র কন্যা গত বছর এস.এস.সি পাশ করার পর থেকে গ্রামের বাড়িতে থাকে। মাঝে মাঝে এসে বাবা মায়ের সাথে থাকতেন।

এর আগে শনিবার (১৪ মার্চ) ভোরে সোনরাগাঁ উপজেলার কাঁচপুর ইউনিয়নের সোনাপুর এলাকায় একটি বাড়িতে অগ্নিদূর্ঘটনায় স্বামী-স্ত্রী দগ্ধ হন। আশংকাজনক অবস্থায় তাদের ঢাকা মেডিকেলের বার্ণ ইউনিটে ভর্তি করা হয়। দগ্ধ দম্পতি দুজনই শ্রমজীবি মানুষ।






Related News

Comments are Closed