Main Menu

মতলবে ফসল কাটাকে কেন্দ্র করে স্বামী-স্ত্রীকে মারধর \ আটক ১


মতলব প্রতিনিধি: জমি লীজ (পোষানি) নিয়ে সরিষা চাষ করে ফসল ঘরে তুলেছেন মাত্র। এরই মধ্যে ওই জমি নিয়ে বিরোধ করা প্রতিপক্ষের লোকজনের হামলার শিকার হন স্বামী মিজানুর রহমান মোল্লা ও তার স্ত্রী সেলিনা বেগম। গত ২১ ফেব্রæয়ারি বিকালে মতলব পৌরসভার দিঘলদী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।
আহতের সূত্রে জানা যায়, পৌরসভার দিঘলদী গ্রামের জব্বার আলীর ছেলের কাশেমের কাছ থেকে ১শত ২০ শতাংশ জমি লীজ (পোষানি) নেয় একই গ্রামের আব্দুল রশিদ মোল্লার ছেলে মিজান মোল্লা। লীজ নেওয়া ওই জমিতে সরিষা চাষ ফসল ঘরে তুলে সে। কিন্তু ওই জমি নিয়ে কাশেম গংদের সাথে একই এলাকার জনু প্রধানের ছেলেদের সাথে বিরোধ চলে। যার ফলে তারা (জনু প্রধান গংরা) লীজ নেওয়া মিজান মোল্লার ফসল লুটপাট করার জন্য ঘটনার সময়ে তাদের বাড়িতে হামলা করে বসত ঘর ভাংচুর করে ফসল লুট করে নিয়ে যায। ওই সময় হামলাকারীদের বাধা প্রদান করতে গেলে মিজান ও তার স্ত্রী মারধরের শিকার হয়। বর্তমানে স্বামী-স্ত্রী দু’জনেই মতলব দক্ষিণ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছন। আর এ ঘটনায় মিজান মতলব দক্ষিণ থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করলে পুলিশ জনু প্রধানের ছেলে দেলোয়ার প্রধানকে আটক করে আদালতে প্রেরন করে।
আহত মিজানুর রহমান বলেন, আমি জমি লীজ নিয়ে সরিষা চাষ করি। কিন্তু তাদের সাথে জমির মালিকের কী ঝামেলা রয়েছে তা আমার জানা ছিলো না। তারা (জনুর ছেলেরা) আমর বাড়িতে এসে ভাংচুর করে ফসল নিয়ে যায় এবং আমাকে ও আমার স্ত্রীকে মারধর করে।






Related News

Comments are Closed