Main Menu

নারায়নগঞ্জে যৌন উত্তেজক সিরাপসহ ১২জন গ্রেফতার

প্রতিনিধিঃ নারায়নগঞ্জের সোনারগাঁয়ে র‌্যাব ১১ অভিযান চালিয়ে বিপুল পরিমাণ নিষিদ্ধ যৌন উত্তেজক সিরাপ ও ভেজাল মশার কয়েল জব্দ করেছে,
সোনারগাঁয়ের কুতুবপুরে দুইটি কারখানায়
এ অভিযান পরিচালনা করেন র‌্যাব এ সময় ১২ জনকে আটক করা হয়।
সোমবার ১০ ফেবরুয়ারি সকালে সোনারগাঁয়ের কুতুবপুর এলাকা এমকে ফুডস্ ও এমএম কনজ্যুমার নামে দুটি কারখানায় অভিযান চালায় র‌্যাব।

এ সময় কারখানা দুটি থেকে ৭,৩০০ বোতল নিষিদ্ধ যৌন উত্তেজক শরবত ও বিপুল পরিমাণ বিভিন্ন ব্র্যোন্ডের কয়েল এবং ১২জনকে গ্রেফতার ১টি কাভার্ড ভ্যান জব্দ করা হয়।
গ্রেফতার কৃতরা হলো সুমন মোল্লা (১৯), রকিবুল ইসলাম (২২), ফয়সাল আহম্মেদ (১৯), রাজু বেপারী (২৪), খায়রুল আলম (৪৭), হাবু বেপারী (৫০), রাকিব হোসাইন (২৪), আব্দুর রহমান (২৭), আশরাফুল ইসলাম (২৫), তাহমীদ ইসলাম আকিব (২৩), আনোয়ার হোসেন (২২) এবং রাশেদ গাজী (২৩) নামে ১২ জনকে।

র‌্যাব-১১ এর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জসিম উদ্দিন চৌধুরী সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানান, কারখানা দুটিতে দীর্ঘদিন যাবৎ অবৈধ গ্যাস সংযোগ দিয়ে অনুমোদনহীন যৌন উত্তেজক শরবত এবং ভেজাল কয়েল উৎপাদন ও বাজারজাত করে আসছিল। এমএম কনজ্যুমার দীর্ঘদিন ধরে অবৈধভাবে জাম্বু, গাংচিল, ইগলু, ম্যাক্স, নাইট মাস্টার ইত্যাদি বিভিন্ন ব্র্যান্ডের কয়েল তৈরি ও প্যাকেটজাত করে বাজারে বিক্রি করে আসছে।

এমকে ফুডস্ এর উৎপাদনকৃত যৌন উত্তেজক লায়ন ফুডস শরবতগুলো প্যারাসিটামল পাউডার, টেস্টি সল্ট, স্যাগারিন, এমপিএস, ব্যাফেন, এসএস পাউডার, সোডিয়াম পাউডার, সাইট্রিক এসিড, ঘাম, ঘন চিনি, সাধারণ চিনি, ফ্লেভার ও রং সহ মোট ১৬টি ক্ষতিকারক রাসায়নিক উপাদান দিয়ে তৈরি করা হত। যা জনস্বাস্থ্যের জন্য খুবই ঝুঁকিপূর্ণ।
র‌্যাবের এই কর্মকর্তা আরও জানান।






Related News

Comments are Closed