Main Menu

কেশবপুরবাসীকে কাঁদিয়ে চির বিদায় ইসমাত আরা সাদেক

শামীম আখতার, ব্যুরো প্রধান (খুলনা): কেশবপুর উপজেলার লাখো মানুষকে কাঁদিয়ে চির বিদায় নিলেন যশোর-৬ আসনের সংসদ সদস্য (এমপি) সাবেক জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ইসমাত আরা সাদেক। বুধবার তাঁর নির্বাচনী এলাকা কেশবপুর শহরের পাবলিক মাঠে জোহর নামাজ বাদ জানাজা শেষে বগুড়ায় বাবার বাড়ির পারিবারিক কবরস্থানে দাফন সম্পন্ন করার জন্য নিয়ে যাওয়া হয়।
বুধবার সকাল সোয়া ১১ টায় ঢাকা থেকে একটি বিশেষ হেলিকপ্টারে করে ইসমাত আরা সাদেকের মরদেহ কেশবপুর সরকারি ডিগ্রি কলেজের মাঠে আনা হয়। সেখান থেকে কেশবপুর পাবলিক মাঠে নেওয়া হয় জানাজার জন্য। জানাজার আগে তাঁর কপিনে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান, বাংলাদেশ কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য পিযুষ কান্তি ভট্টাচার্য ও সাংগঠনিক সম্পাদক বি এম মোজাম্মেল হক এমপি। পাশাপাশি উপজেলাা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসন, জেলা পরিষদ, যশোর জেলা আওয়ামীলীগ, উপজেলা আওয়ামীলীগ, উপজেলা পরিষদ, আওয়ামীলীগের বিভিন্ন অঙ্গ সংগঠন, কেশবপুর পৌরসভা, কেশবপুর প্রেসক্লাবসহ বিভিন্ন সামাজিক ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানানো হয়। জানাজায় অংশ নেন কেশবপুরের দলমত নির্বিশেষে সর্বস্তুরের মানুষ। এ সময় তাঁকে দেখার জন্য অসংখ্য নারীরাও উপস্থিত হন। জানাজায় অংশ নিতে আসেন খুলনা, যশোর, সাতক্ষীরা ও মাগুরা জেলার বিভিন্ন সরকারি কর্মকর্তারাও। জানাজার আগে ইসমাত আরা সাদেকের সামাজিক ও রাজনৈতিক জীবনের উপর সংক্ষিপ্ত বক্তব্য দেন তাঁর ছেলে তানভীর সাদেক, মেয়ে নওরীণ সাদেক ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা কাজী রফিকুল ইসলাম।
জোহরের নামাজ বাদ কেশবপুর পাবলিক মাঠে জানাজা শেষে ইসমাত আরা সাদেকের মরদেহ ওই হেলিকপ্টরে করে বগুড়ার পিতার বাড়িতে নিয়ে যাওয়া হয় দাফনের জন্য। জানাজার নামাজ পড়ান কেশবপুর উপজেলা পরিষদ মসজিদের পেশ ঈমাম মাওলানা আবদুল জলিল।
ইসমাত আরা সাদেক ২১ জানুয়ারি (মঙ্গলবার) সকালে ঢাকার একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন।






Related News

Comments are Closed