Main Menu

সিদ্ধিরগঞ্জে ১৩২টি স্মার্ট চোরাই মোবাইল উদ্ধার : গ্রেফতার ১

গাজী সোহেল  জেলা প্রতিনিধি নারায়ণগঞ্জ  :চোরাই মোবাইল ক্রয় বিক্রয় রুখতে নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জ থানা পুলিশের বিশেষ অভিযানে চোরাইকৃত ৬ লাখ ৬০ হাজার টাকা মূল্যের ১৩২টি স্মার্ট মোবাইল ফোন উদ্ধার করা হয়েছে। এসময় এ চক্রের এক সদস্য কামরুল হাসান ওরফে রিপন (২০) কে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃত রিপন চাঁদপুর জেলার হাজীগঞ্জ থানার কাশিমপুর এলাকার মজিবুর পাটোয়ারীর ছেলে।

অভিযানের সময় এই চক্রের আরেক সদস্য নবী হোসেন পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে পালিয়ে যায়। বুধবার (২২ জানুয়ারী) দুপুরে সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় এক সংবাদ সম্মেলনে সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামরুল ফারুক এর সত্যতা নিশ্চিত করেন।
গত মঙ্গলবার সন্ধ্যায় সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামরুল ফারুক, পরিদর্শক (তদন্ত) আজিজুল হক ও পরিদর্শক (অপারেশন্স) রুবেল হাওলাদারের দিক নির্দেশনায় শিমরাইল মোড়স্থ আমিরুন্নেছা সুপার মার্কেটে এ অভিযান পরিচালনা করা হয়।
সংবাদ সম্মেলনে ওসি কামরুল ফারুক জানান, দীর্ঘদিন থেকে একটি চক্র শিমরাইল মোড় এলাকায় চোরাই মোবাইল ফোন ক্রয় বিক্রয় করে আসছে। এদের বেশ কয়েকজন সদস্য রয়েছে যারা মোবাইল ছিনতাইকারী, চোর চক্রের সদস্যদের সাথে নিয়মিত যোগসংযোগ করে পথে-ঘাটে ছিনতাই ও বাসা-বাড়ি থেকে দামী মোবাইল ফোন চুরি করে নিয়ে আসে। পরে এগুলো সিদ্ধিরগঞ্জের বেশ কয়েকটি মার্কেটে ক্রয়-বিক্রয় করে আসছে বলে পুলিশ জানতে পারে।
এর সূত্র ধরে পুলিশ এই চক্রকে গ্রেফতারের জন্য নজরদারী শুরু করে। এরপর পুলিশ নিশ্চিত হয়ে আমিরুন্নেছা সুপার মার্কেটে নবী হোসেনের দোকানে অভিযান চালায়। এসময় উদ্ধারকৃত ওই চোরাই মোবাইলগুলোসহ রিপনকে গ্রেফতার করা হয়। তবে দোকান মালিক নবী হোসেন পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে পালিয়ে যায়।
তিনি আরো বলেন, সিদ্ধিরগঞ্জ থানা পুলিশ চুরি, ছিনতাই, ডাকাতি, মাদক ব্যবসাসহ বিভিন্ন অপরাধ কর্মকান্ড রুখতে নজরদারীসহ বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে আসছে। এরই ধারাবাহিকতায় এ অভিযান পরিচালনা করা হয়।
এ ঘটনায় পলাতক নবী হোসেনসহ রিপনকে আসামী করে মামলা দায়ের করা হয়েছে। অভিযান অব্যাহত থাকবে।






Related News

Comments are Closed