Main Menu

সিদ্ধিরগঞ্জে মিজমিজিতে বসত বাড়ীতে হামলা, লুট-পাট ও সবজি গাছ কর্তন

সিদ্ধিরগঞ্জের মিজমিজিতে বসত বাড়ীতে হামলা, লুট-পাট ও সবজি গাছ কর্তন। গত বৃহস্পতিবার সন্ধায় একদল সন্ত্রসী মরহুম আলী হোসেনের বাড়ীতে এ হামলাসহ লুট-পাট ও সবজি গাছ কর্তন করে।
ভূক্তভুগীরা জানায়, সিদ্ধিরগঞ্জের মিজমিজি বাতানপাড়া ক্যানালপাড় এলাকায় মরহুম আলী হোসেনের বাড়ী। উক্ত বাড়ীতে আলী হোসেনের ওয়ারিশ ছেলে মেয়েরা বসবাস করে আসছে। গত বৃহস্পতিবার সন্ধায় ভূমি দস্যু, আদম ব্যবসায়ী, শুদ খোর মোতালেব একদল সন্ত্রাসী নিয়ে আলী হোসেনের বাড়ীতে হামলা চালায়। এসময় হামলা কারিরা আলী হোসেনের ছেলে ফজল হকের ঘর থেকে ১৭’হাজার টাকা, ২’ভরী স্বর্ণালংকার, আলী হোসেনের মেয়ে নুরুন নেছার ঘর থেকে নগদ ৮’হাজার টাকা ও দেড় ভরী স্বর্ণালংকারসহ প্রতিটি ঘর থেকে মূল্যবান জিনিসপত্র লুট করে নিয়ে যায়। লুন্ঠনকারিদের বাধা দিতে গেলে তাদের হাতে থাকা লোহার রডের বাড়ীতে ফজল হকের স্ত্রী রুবী, নুরুন নেছা, আক্তার হোসেন ও তার ছেলে আল আমিন আহত হয়। হা,লা কারিরা যাওয়ার সময় বাড়ীর উঠানে লাগানো পালং শাখ গাছ মাড়িয়ে ও ছিম গাছ গুলো গোড়া থেকে কেটে দিয়ে যায়। এ কথা কাউকে জানালে প্রানে মেরে ফেলবে বলে হুমকি দিয়ে যায়। উল্যেখ, ভূমি দস্যু, আদম ব্যবসায়ী, শুদ খোর মোতালেব এ বাড়ী দখলে নিতে এ যাবৎ আলী হোসেনের ছেলেদের বিরুদ্ধে কমপক্ষে ৩’ডজন মামলা দায়ের করেছে। আরো মামলা দিতে একেক সময় একেক ধরনের নাটক তৈরী করে। এ বাড়ীর উপর আদালত কর্তৃক স্থিথি অবস্থায় জারি করা রয়েছে। তার পরেও আইনশৃঙ্খলা ভঙ্গ করতে মোতালেব দলে বলে প্রায় হামলা চালায়। গত কয়েক মাস পূর্বে ইক্ত বাড়ীর ৫’টি ঘর আগুন দিয়ে পুরিয়ে দেয় মোতালেবগং। এ ব্যাপারে আদালতে মামলাও রয়েছে। উচ্চ হারে সাদা ষ্টাম্পে স্বাক্ষর রেখে শুধ খাওয়া যার পেশা, সে সব কাজেই করতে পারে। মোতালেব কিছুদিন পূর্বে ছেলের নামে জমি লিখে দিয়ে সেই জমি অন্যত্র বিক্রয় করায় এলাকায় সমালোচনার ঝড় উঠে। সে অসহায় মহিলাদের স্বনির্ভর করার আশ্বাশ দিয়ে বিদেশে পাঠিয়ে অল্প দিনে বহু টাকার মালিক বনে গেছে। এ টাকার জোড়ে অসহায় আলী হোসেনের পরিবারের উপর বিভিন্ন সময় মিথ্যা বানোয়াট কাহিনী বানিয়ে আইনের মাধ্যমে হয়রানী করে আসছে। বিশেষ করে মোতালেবের এক মাদক সেবী ছেলে সজিবের অত্যাচারে এলাকাবাসী অতিষ্ঠ। সজিবে বিরুদ্ধে মোরসালীন হত্যাসহ কয়েকটি মামলা রয়েছে।########






Related News

Comments are Closed