Main Menu

“আর কোন দিন ফিরবো না” চিঠি লিখে যুবক নিরুদ্দেশ

জাহিদুর রহমান তারিক, ঝিনাইদহঃ ঝিনাইদহের মহেশপুর উপজেলার সেজিয়া গ্রাম থেকে আব্দুল্লাহ আল মামুন দিগন্ত (৩০) নামে এক যুবক চিঠি লিখে নিরুদ্দেশ হয়েছেন। গত তিন দিন ধরে তার আর খোঁজ পাওয়া যাচ্ছে না। সনি র‌্যাংগস মটরসের ডেপুটি ম্যানেজার আব্দুল্লাহ আল মামুন দিগন্ত সেজিয়া গ্রামের বজলুর রহমানের একমাত্র ছেলে। গত ২৬ সেপ্টম্বর সকালে পিতা মাতার উদ্দেশ্যে “আর কোনদিন ফিরবো না” চিঠি লিখে দিগন্ত বাড়ি থেকে বেরিয়ে যায়। এ ঘটনায় নিখোঁজ মামুনের চাচা মশিয়ার রহমান মহেশপুর থানায় একটি জিডি করেছেন যার নং ১১৭০। পারিবারিক সুত্রে জানা গেছে, আব্দুল্লাহ আল মামুন দিগন্ত সনি র‌্যাংগস মটরসে চাকরী করার সময় একটি দুর্ঘটনায় মোটা অংকের টাকা জরিমানা দেয়। বাড়ি এসে দেখেন তার স্ত্রী জোবায়দা খাতুন ইম্পা বাপের বাড়ি চলে গেছে। সেও আর আসবে না বলে সাফ জানিয়ে দেয়। স্ত্রী জোবায়দা খাতুন ইম্পা চুয়াডাঙ্গার জীবননগর উপজেলার শাপলাকলি পাড়ার এনামুল হকের মেয়ে। এই দম্পত্তির ৬ মাসের একটি কন্যা সন্তান আছে। মুলত স্ত্রী ও সন্তানের শোক এবং শ্বশুরকে দেওয়া টাকার কারণেই ক্ষোভে অভিমানে আব্দুল্লাহ আল মামুন দিগন্ত বাড়ি ছেড়েছেন বলে মনে করছেন তার পরিবার। যাওয়ার সময় স্ত্রী ইম্পার কাছেও একটি নাতীদীর্ঘ চিঠি লিখে গেছেন আব্দুল্লাহ আল মামুন। ওই চিঠি মামুন তার চাচাতো ভাই আব্দুল্লাহ আল মাহফুজের কাছ রেখে যায় ইম্পার দেওয়ার জন্য। চিঠিতে অনেক মান অভিমান ও ক্ষোভের কথা উল্লেখ করেছেন আব্দুল্লাহ আল মামুন। মামুনের বোন নুসরাত জাহান জানান, তার একমাত্র ভাইকে খুঁজে না পেয়ে তার পিতা মাতাসহ পরিবারের সবাই শোকাহত। সর্বক্ষন মা ও আব্বা কান্নাকাটি করছে সন্তানের জন্য। বিষয়টি নিয়ে মহেশপুর থানার ওসি রাশেদুল আলম জানান, আমরা জিডি এন্ট্রির পর নিখোঁজ ব্যাক্তির উদ্ধারে সবখানেই ম্যাসেজ দিয়ে দিয়েছি। একজন এসআই বিষয়টি তদন্ত করছেন বলেও তিনি জানান।






Related News

Comments are Closed