Main Menu

মতলবে মুক্তিযোদ্ধার সন্তান শারিরীক প্রতিবন্ধী সিএনজি ড্রাইভারকে হত্যার চেষ্টা ও সিএনজি ছিনতাইয়ের চেষ্টা

মতলব প্রতিনিধিঃ মতলব পৌরসভার পুরাতন হাসপাতাল থেকে কদমতলী রোডে চলাচলকৃত সিএনজি চালক আঃ রাকিব নামে এক শারিরীক প্রতিবন্ধী পৌরসভার কদমতলী এলাকার উসৃঙ্খল যুবক চর মুকুন্দির আবুল খায়েরের ছেলে আঃ জব্বারের দ্বারা মতলব রয়মনেন নেসা মহিলা ডিগ্রি কলেজের সামনে আক্রমনের স্বীকার হন।আহত আঃ রাকিব একজন বীর মুক্তিযোদ্ধার সন্তান। তার বাবার নাম মৃত আবুল কাশেম মিয়া।

খোঁজ নিয়ে জানা যায় উক্ত জব্বার

গত কিছুদিন পূর্বে বাংলাদেশ পুলিশ বাহিনীতে কনস্টেবল পদে চাকুরী পায়। চাকুরী পাওয়ার পর থেকেই নিজেকে পুলিশ সদস্য পরিচয় দিয়ে এলাকায় দাপিয়ে বেড়াচ্ছে। ঘটনার বিবরনে জানা যায়, শারীরিক প্রতিবন্ধী আঃ রাকিব সাধারন মানুষের মতো অন্য কোনো কাজ করার সামর্থ্য না থাকায় জীবিকার তাগিদে সিএনজি চালিয়ে জীবিকা নির্বাহ করে। ঘটনার দিন দুপুর বেলা যাত্রী নিয়ে আসার সময় পথিমধ্যে উক্ত আঃ জাব্বার গাড়ীটি গতি রোধ করে। এ সময় গাড়ীতে একজন স্কুল শিক্ষিকা উপস্থিত ছিলেন এবং তাহাকে (জব্বার) বলেন যে গাড়ীটি ওনি রিজার্ভ নিয়ে এসেছেন। তবুও জব্বার জোর করে গাড়ীতে উঠতে চাইলে চালকের সাথে বাকবিতণ্ডা সৃষ্টি হয়। একপর্যায়ে আঃ জব্বার চালক রাকিব কে এলোপাথারি আঘাত করতে থাকলে সে মাটিতে লুটিয়ে পরে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও স্থানীয়দের সাথে কথা বলে যানা জায় উক্ত জব্বার মাদকাসক্ত ও বখাটে, প্রায়ই সে এ ধরনের ঘটনা ঘটিয়ে থাকে। সম্প্রতি পুলিশে চাকরী পাওয়ার পর থেকে সে আরো বেশি উশৃংখলতা শুরু করেছে।






Related News

Comments are Closed