Main Menu

বিদেশী মুদ্রা প্রতারক-চক্রের দু’ সদস্য গোপালগঞ্জে গ্রেফতার ॥ ৯০ লাখ টাকা হাতিয়ে নেয়ার স্বীকারোক্তি ॥


গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি : গোপালগঞ্জে আন্ত:জেলা বিদেশী মুদ্রা (রিয়াল) প্রতারক চক্রের দু’ সদস্যকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এসময় তাদের কাছ থেকে নগদ আড়াই লাখ টাকা ও প্রতারণা কাজে ব্যবহৃত একটি গামছার কুন্ডলি উদ্ধার করা হয়েছে।
গ্রেফতারকৃতরা হল, ফরিদুপরের ভাঙ্গা উপজেলার বালিয়া গ্রামের মৃত রাজ্জাক ব্যাপারীর ছেলে মতিন ব্যাপারী (৫৭) ও একই গ্রামের মৃত ধলা মিয়ার ছেলে সিরাজ মিয়া (৪৫)।
রবিবার দিনভর ফরিদপুর ও মাদারীপুরে অভিযান চালিয়ে পুলিশ তাদেরকে গ্রেফতার করে। এব্যাপারে ওইদিন রাতেই গোপালগঞ্জ থানায় তাদের বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের হয়েছে।
গোপালগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মোহাম্মদ ছানোয়ার হোসেন জানান, প্রতারক মতিন ও সিরাজ রিয়াল বিক্রীর কথা বলে গত ২৫ আগস্ট গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়ার সোনাখালী গ্রামের মসজিদের ঈমাম আঃ রাজ্জাক গাজীকে ঢাকা-খুলনা মহাসড়কে ডেকে আনে। এরপর একটি শপিং ব্যাগে গামচার পুটলীতে সৌদি রিয়াল দেখিয়ে ৫ লাখ টাকা নেয়; কিন্তু রিয়ালের পরিবর্তে অন্য একট শপিং ব্যাগ ধরিয়ে দিয়ে দ্রুত সটকে পড়ে এবং মোবাইল ফোন বন্ধ করে দেয়। একই কায়দায় গত ৮ জুন প্রতারক চক্রের সদস্যরা নড়াইল জেলার নড়াগাতি থানার কবির মোল্লার ১ লক্ষ ৭৫ হাজার টাকা, ১৮ জুন টুঙ্গিপাড়ার আলিম শিকদারের আড়াই লাখ টাকা, ১০ মে কোটালীপাড়ার বাদল কাজীর ৯৫ হাজার টাকাসহ মোট ১০ লক্ষ ২০ হাজার টাকা হাতিয়ে নেয়। পরে ভূক্তভোগীরা পুলিশের কাছে লিখিত অভিযোগ করলে আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার করে পুলিশ ওই দু’ প্রতারককে গ্রেফতার করে।
পুলিশ কর্মকর্তা আরও জানান, গ্রেফতারকৃত প্রতারকদেরকে জিজ্ঞাসাবাদ করে এসব প্রতারণার বহু তথ্য পাওয়া গেছে। তারা ৮-১০ জনের গ্রুপ মিলে দেশের বিভিন্ন জেলায় বিভিন্ন কায়দায় ইতিমধ্যে শতাধিক লোককে প্রতারিত করে প্রায় ৯০ লাখ টাকা হাতিয়ে নিতে সক্ষম হয়েছে। প্রতারক-চক্রের বাকী সদস্যদেরও শীঘ্রই আইনের আওতায় আনা হবে। গ্রেফতারকৃত প্রতারকদের বিরুদ্ধে ইতিপূর্বে রিয়াল প্রতারণার দায়ে বিভিন্ন থানায় একাধিক মামলা রয়েছে।






Related News

Comments are Closed