Main Menu

পলাশবাড়িতে ভূয়া এমবিবিএস ডাক্তার গ্রেফতার : ৪ মাসের কারাদণ্ড

গাইবান্ধা প্রতিনিধি :গাইবান্ধার পলাশবাড়ি উপজেলা সদরে বেগম রোকেয়া ডায়াগনষ্টিক সেন্টারে ভ্রাম্যমান আদালতের মোবাইল টিম সোমবার রাত ১০টায় অভিযান চালিয়ে ভূয়া এমবিবিএস (পিজিটি ঢাকা) এবং বিভিন্ন রোগের বিশেষজ্ঞ পরিচয়দানকারি ভূয়া ডাক্তার আব্দুল রাজ্জাক সরকার আপেলকে গ্রেফতারকে করে। পরে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে ওই ব্যক্তিকে ৪ মাসের কারাদণ্ড এবং বেগম রোকেয়া ডায়াগনষ্টিক সেন্টারকে ৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট সতীশ চন্দ্রের নেতৃত্বে পুলিশের একটি অভিযানিক দল অভিযান চালায় এবং মোবাইল কোট পরিচালনা করেন। জেলা জাতীয় নিরাপত্তা গোয়েন্দা সংস্থা (এনএসআই) এর গোপন তথ্যের ভিত্তিতে এই অভিযান পরিচালিত হয়।
জানা গেছে, গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার মো. ইদ্রিস আলী সরকারের পুত্র এই আব্দুল রাজ্জাক সরকার আপেল দীর্ঘদিন যাবত ভূয়া কাগজপত্রের মাধ্যমে নিজেকে এমবিবিএস (পিজিটি ঢাকা) এবং বিভিন্ন রোগের বিশেষজ্ঞ পরিচয় দিয়ে ওই ডায়াগনষ্টিক সেন্টারের চিকিৎসা করে আসছিল। এছাড়াও গোবিন্দগঞ্জ উপজেলা সদরেও এই ভূয়া ডাক্তারের একটি চেম্বার রয়েছে। যেখানে সে প্রতিদিন চিকিৎসা প্রদান করে আসছিল।
গোপন সংবাদের ভিত্তিতে গাইবান্ধা এনএসআই এর একটি দল নিবিড়ভাবে তদন্ত করে এই ভূয়া ডাক্তারের অপকর্ম সম্পর্কে নিশ্চিত হন এবং সংশি¬ষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে তারা অভিযোগ জানান। এই অভিযোগের ভিত্তিতেই রাতে নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট সতীশ চন্দ্রের নেতৃত্বে পুলিশ বেগম রোকেয়া ডায়াগনষ্টিক সেন্টার থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। এসময় ভূয়া চিকিৎসক আব্দুর রাজ্জাকের ডিগ্রীর কাগজপত্র সঠিক না থাকায় তাকে কারাদণ্ড এবং বেগম রোকেয়া ডায়াগনষ্টিক সেন্টারের কোন লাইসেন্স না থাকায় প্রতিষ্ঠানের জরিমানা করা হয়। এছাড়া বেগম রোকেয়া ডায়াগনষ্টিক সেন্টারের চিকিৎসা সংক্রান্ত সকল মালামাল জব্দ করা হয়।






Related News

Comments are Closed