Main Menu

পৌর এলাকা যেন ময়লার ভাগাড়, দুর্গন্ধে অতিষ্ঠ মানুষ।

স্টাফ রিপোর্টার, ঝিনাইদহঃ ঝিনাইদহের শৈলকুপা পৌরসভার বিভিন্ন পাড়া মহল্লায় ময়লা আবর্জনার স্তুপ গড়ে উঠেছে। নিয়মিত পরিস্কার না করায় দুর্গন্ধে মানুষ অতিষ্ঠ। পৌর চেয়ারম্যান কাজী আশরাফুল আজম অবশ্য বলেছেন, কর্মচারীরা আন্দোলনে রয়েছে। চাকরী জাতীয়কারণ না হওয়ায় তারা সব সেবা বন্ধ করে দিয়েছেন। ফলে ময়লা পরিস্কার করা কোন লোকজন নেই। সরেজমিন দেখা গেছে, শৈলকুপার পাড়া মহল্লায় ময়লার স্তুপ গড়ে উঠেছে। মাসের পর মাস দুর্গন্ধযুক্ত আবর্জনা পরিস্কার করা হচ্ছে না। শৈলকুপা উপজেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্রের পাশেই রয়েছে একটি ময়লা আবর্জনার স্তুপ। দেখে মনে হচ্ছে মাসে পর মাস ময়লাগুলো সেখানে পড়ে আছে। সেখান থেকে প্রতিনিয়ত দুর্গন্ধ ছড়াচ্ছে। দুর্গন্ধ বাতাসে মিশে মানুষের স্বাস্থ্যহানী ঘটছে। মশা মাছির বংশ বিস্তার হচ্ছে। পথচারীদের মুখে রুমাল দিয়ে চলাচল করতে দেখা গেছে। পৌর নাগরিকরা বলছেন তারা পৌরসভার কর ও ট্যক্স পরিশোধ করেন, কিন্তু ভাল সেবা পাচ্ছেন না। হাসপাতাল পাড়ার বাসিন্দা আকমল হোসেন ও নাছির উদ্দীন অভিযোগ করেন, তাদের এলাকার ময়লা আবর্জনা কয়েক মাস ধরে পরিস্কার করা হচ্ছে না। উৎকট গন্ধে বাসা বাড়িতে বসবাস করা মুশকিল হয়ে পড়েছে। মাসের পর মাস পৌর কর্তৃপক্ষ ময়লা সাফ না করায় জনস্বাস্থ্য হুমকীর মুখে পড়েছে। বিষয়টি নিয়ে শৈলকুপা পৌরসভার মেয়র কাজী আশরাফুল আজম জানান, আগে আমাদের ময়লা ফেলা গাড়ি ছিল না। ভ্যান গাড়িতে ময়লা ফেলা হতো। এখন নতুন গাড়ি পেয়েছি কিন্তু ড্রাইভার নেই। তাছাড়া কর্মচারীরা সেবা বন্ধ করে দেওয়ায় ময়লা পরিস্কার করা যাচ্ছে না। তিনি মাসের পর মাস ময়লা পরিস্কার না করা পৌর বাসির অভিযোগ সত্য নয় বলে দাবী করেন।






Related News

Comments are Closed