Main Menu

যাত্রীবাহী বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে আহত ২৭


শামীম আখতার, ব্যুরো প্রধান খুলনা: বৃহস্পতিবার দুপুরে যশোর-সাতক্ষীরা সড়কের কেশবপুরের মধ্যকুল গুটলেতলা নামক স্থানে যশোর থেকে ছেড়ে আসা সাতক্ষীরাগামী যাত্রীবাহী বাস (কুমিল্লা-জ-১১-০০৭৭) নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে একটি মৎস্য ঘেরে উল্টে পড়ে। এতে নারী শিশুসহ ২৭ জন যাত্রী আহত হয়। কেশবপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে ১২ জনকে। এদের মধ্যে আশঙ্কাজনক আড়াই মাসের শিশু ফারহানকে উন্নত চিকিৎসার জন্য যশোর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। আহত অন্যান্যরা স্থানীয় বিভিন্ন ক্লিনিকে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছে।
বাসটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে মৎস্য ঘেরে উল্টে পড়লে তাৎক্ষনিক খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিস, পুলিশ ও স্থানীয় জনগণ যাত্রীদের উদ্ধার এবং আহতদের স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও স্থানীয় ক্লিনিকে নিয়ে ভর্তি করে দেয়। আহতরা হলেন সামিরা বেগম (৩০), বজলুর রহমান (৬৮), সুফিয়া বেগম (৫৫), শাহীন (৪২), রাজিন (৪), রাবেয়া বেগম (২৬), তোফাজ্জেল (৬১), প্রবল (১৬), পলক (১৬), হোসেন আহম্মেদ (২০), কেয়া (২২), রাবেয়া খাতুন (৪০), ফারহান (আড়াই মাস)।
আহত যাত্রী সামিরা বেগম জানান, অতিরিক্ত যাত্রী নিয়ে ড্রাইভার গাড়িটি ৭০ থেকে ৮০ কিলোমিটার গতিতে চালাচ্ছিল। তাকে বারবার আস্তে চালানোর কথা বললেও আমাদের কথা শোনেনি। অপর আহত যাত্রী বজলুর রহমান ও তার স্ত্রী সুফিয়া বেগম জানান, খুব দ্রুত গতিতে গাড়িটি চলতে থাকলে হঠাৎ বিকট শব্দ, চোঁখ মেলে দেখি আমি পানির মধ্যে।
উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাক্তার কামরুজ্জামান জানান, সড়ক দূর্ঘটনায় আহত গুরুত্বর ১২ জনকে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। এদের মধ্যে দেড় বছরের একজন শিশুর অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় উন্নত চিকিৎসার জন্য স্থানান্তর করা হয়।
এ ব্যাপারে কেশবপুর থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) শাহজাহান আহমেদ জানান, যাত্রীবাহী বাসটি কেশবপুরের মধ্যকুল গুটলেতলা নামক স্থানে আসলে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে একটি মৎস্য ঘেরে উল্টে পড়ে। সংবার পেয়ে পুলিশ, ফায়ার সার্ভিস ও স্থানীয় জনগণ তাদেরকে উদ্ধার করে এবং আহতদের কেশবপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। #






Related News

Comments are Closed