Main Menu

বাল্যবিয়ের অপরাধে ৮ জনের কারাদন্ড


শামীম আখতার, ব্যুরো প্রধান খুলনা: যশোরের কেশবপুরে পৃথক ২টি বাল্যবিয়ের অপরাধে বর, কনে, কনের পিতাসহ তাদের আত্মীয় স্বজনদের বিভিন্ন মেয়াদে কারাদন্ড প্রদান করেছে ভ্রাম্যমান আদালত।
ভ্রাম্যমান আদালত সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার ভোগতীনরেন্দ্রপুর গ্রামের আব্দুর রাজ্জাক সরদারের মেয়ে সুরাইয়া খাতুনের সাথে পার্শ্ববর্তী মণিরামপুর উপজেলার মুন্সিখানপুর গ্রামের বজলুর রহমানের ছেলে সাইফুল ইসলামের বিবাহ হয়। বাল্যবিয়ের কথা জানতে পেরে শুক্রবার (২১ জুন) রাতে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. মিজানূর রহমান তাদেরকে আটক করে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনার মাধ্যমে কনে সুরাইয়া খাতুনকে (১৩) ১ মাসের আটকাদেশ, বর সাইফুল ইসলামকে দেড় বছর, কনের পিতা আব্দুর রাজ্জাককে ১ বছর এবং বরের তিন ভগ্নিপতি মণিরামপুর উপজেলা লাউকুন্ডা গ্রামের বাশার মোল্যার ছেলে লিটন মোল্যা (৩০), মুন্সিখানপুর গ্রামের লেয়াকত মজুমদারের ছেলে কবির হোসেন (২৭) ও কামালাপুর গ্রামের সাঈদ গাজীর ছেলে নূরুনবীকে ১ বছর করে কারাদন্ড প্রদান করেন। এ দিকে শনিবার সকালে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. মিজানূর রহমান একই গ্রামের আর একটি বাল্যবিয়ের কথা জানতে পেরে ইসমাইল সরদারের ছেলে হাসান সরদার (১৭) ও শরিয়তপুর জেলার জাজিরা উপজেলার রায়েরকান্দি গ্রামের কাদের মুন্সির কন্যা রানী খাতুনকে (১৫) আটক করে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনার মাধ্যমে ১ মাস করে আটকাদেশ প্রদান করেন।
এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. মিজানূর রহমান বলেন, কেশবপুরে বাল্য বিয়ের অপরাধে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করে তাদেরকে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদন্ড ও আটকাদেশ প্রদার করা হয়। কেশবপুর উপজেলাকে বাল্য বিবাহ মুক্ত করতে এ অভিযান অব্যাহত থাকবে।






Related News

Comments are Closed