Main Menu

প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতেই বোনের গায়ে আগুন

জমি সংক্রন্ত বিষয়ের জের ধরে প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতেই বোনের গায়ে আগুন দেন আপন ফুফাত ভাই। আগুন দেয়ার ঘটনায় নিজের সম্পৃক্ততা স্বীকার করে গ্রেফতারকৃত রাজু সুত্রধর আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিতে এসব কথা জানান।

শুক্রবার রাত ৮টায় পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করে এ তথ্য জানান অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জাকির হোসেন।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জাকির হোসেন সংবাদ সম্মেলনে জানায়, গত বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে নরসিংদীর বীরপুরে কলেজ ছাত্রী ফুলন বর্মন কেক নিয়ে বাড়ি ফেরার পথে অজ্ঞাতনামা দুইজন দুর্বৃত্ত তার হাত মুখ চেপে ধরে পাশের একটি নির্জন স্থানে নিয়ে যায়। পরে কেরোসিন ঢেলে তার শরীরে আগুন ধরিয়ে দেয়।

এ ঘটনায় তার বাবা যোগেন্দ্র বর্মন বাদী হয়ে সদর মডেল থানায় মামলা দায়ের করেন। মামলার তদন্ত ভার পরে জেলা গোয়েন্দা পুলিশের কাছে। এরই প্রেক্ষিতে ডিবি পুলিশে এসআই আবদুল গাফফারের নেতৃত্বে অভিযানে নামে পুলিশ।

এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের সঞ্জিবসহ ৪ জনকে আটক করে পুলিশ। পরে প্রযুক্তি ব্যবহার করে ঘটনার সঙ্গে জড়িত সন্দেহে রাজু সূত্রধর নামে একজনকে শহরের শিক্ষা চত্বর এলাকা থেকে গ্রেফতার করে।

রাজুর তথ্যমতে, ফুলনের ফুফাতো ভাই ভবতোষ ও আনন্দকে গ্রেফতার করে পুলিশ। এ সময় পুলিশের কাছে আগুন দেয়ার কথা স্বীকার করে রাজু।

জবানবন্দিতে রাজু জানায়, ফুলনের ফুপাত ভাই ভবতোষের ঘনিষ্ঠ বন্ধু রাজু সূত্রধর ও আনন্দ বর্মণ। ফুলনের পিতা যোগেন্দ্রর সঙ্গে প্রতিবেশী সুখ লাল ও হিরা লালের বাড়ির জমি সংক্রান্ত বিরোধ চলছিল। এ নিয়ে এলাকায় সালিশ দরবার হয়েছে। ঘটনার দুই দিন আগে ১১ জুন ভবতোষ ও তার মামীর (ফুলনের মা) সঙ্গে ঝগড়া হয় সুখ লালের।

ঝগড়ায় ক্ষিপ্ত হয়ে ফুলনের মা বলেন এখানে থাকবো না। দরকার হয় জমি বিক্রি করে অন্যত্র চলে যাব। এই সুযোগকে কাজে লাগিয়ে প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে পরিকল্পনা করে কলেজছাত্রী ফুলনের ভাই ভবতোষ।

ঘটনার দিন ভবতোষ তার বন্ধু রাজু সূত্রধর ও আনন্দ বর্মনকে নিয়ে বীরপুর রেল লাইনে বসে নিজের বোনকে আগুন দিয়ে প্রতিপক্ষকে ফাঁসানেরা পরিকল্পনা করেন।

সে অনুযায়ী মামাত বোন ফুলন কেক নিয়ে বাড়ি ফেরার পথে ফুলনের মাথায় ও শরীরে কেরোসিন ঢেলে গায়ে আগুন লাগিয়ে দেয় ভবতোষ। আগুন দেয়ার পর ভবতোষ, আনন্দ একদিক দিয়ে ও রাজু অন্যদিক দিক দিয়ে ঘটনাস্থল ত্যাগ করে।

এ ঘটনায় শুক্রবার বিকেলে নরসিংদীর জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট শারমিন আক্তার পিংকীর আদালতে এই স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেয় গ্রেফতারকৃত ভবতোষের বন্ধু রাজু সূত্রধর।






Related News

Comments are Closed