Main Menu

কালীগঞ্জ থেকে অপহৃত শিশু ঢাকা থেকে উদ্ধার, অপহরণকারী আটক


স্টাফ রিপোর্টার, ঝিনাইদহঃঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলার বগেরগাছি গ্রাম থেকে অপহরণ হওয়া ৪র্থ শ্রেণির ছাত্র রিয়াদ হোসেনকে উদ্ধার করেছে কালীগঞ্জ থানা পুলিশ। শিশু রিয়াদ উপজেলার বগেরগাছি গ্রামের ফারুক হোসেনের ছেরে। সোমবার দুপুরে শিশু রিয়াদকে ঢাকার কেরানীগঞ্জের একটি বাসা থেকে উদ্ধার করা হয়। এ সময় অপহরণকারী তাইজুল ইসলাম স্বপন ওরফে মুন্নাকে আটক করে পুলিশ। আটক মুন্না উপজেলার বগেরগাছি গ্রামের শুকুর মোল্লার ছেলে। মঙ্গলবার দুপুরে এক সংবাদ সম্মেলনে পুলিশ সুপার মো: হাসানুজ্জামান জানান, শিশু রিয়াদকে অপহরণের পর ঢাকার কেরানীগঞ্জের একটি বাসায় রাখা হয়। এরপর মোবাইলে শিশু রিয়াদের পরিবারের কাছে ৩ লক্ষ টাকা মুক্তিপণ চাওয়া হয়। এক পর্যায়ে ৩০ হাজার টাকা দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়। সমগ্র বিষয়টি কালীগঞ্জ থানা পুলিশ তদারকি করে। প্রযুক্তি ব্যবহার করে অপহরণকারীর পরিচয় শনাক্ত করা হয়। এরপর বিকাশের মাধ্যমে ৩০ হাজার টাকা দেওয়ার পর প্রযুক্তি ব্যবহার করে ঢাকার কেরানীগঞ্জ থেকে প্রথমে অপহরণকারী স্বপনকে আটক করা হয়। এরপর তার স্বীকারোক্তি মোতাবেক কেরানীগঞ্জের একটি বাসা থেকে শিশু রিয়াদকে উদ্ধার করা হয়। শিশু উদ্ধার অভিযানে নেতৃত্ব দেওয়া কালীগঞ্জ থানা পুলিশের এসআই দেলোয়ার হোসেন বলেন, প্রযুক্তি ব্যবহার করে সোমবার রাতে কালীগঞ্জ থানা পুলিশের একটি টিম ঢাকার কেরানীগঞ্জে অভিযান চালিয়ে শিশু রিয়াদকে উদ্ধার ও অপহরণকারী স্বপনকে আটক করা হয়। মঙ্গলবার দুপুরে ঝিনাইদহ জেলা পুলিশ সুপার হাসানুজ্জামান স্যারের মাধ্যমে শিশুটিকে বাবা-মায়ের কাছে হস্তান্তর করা হয়। এ ঘটনায় থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে জানান তিনি। উল্লেখ্য, গত শনিবার ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলার বগেরগাছি গ্রামে আত্মীয় পরিচয়ে বাড়ীতে এসে রিয়াদ হোসেন (৯) নামে এক শিশু অপহরনের শিকার হয়। সংবাদ সম্মেলনে ঝিনাইদহের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (হেডকোয়াটার্স) তারেক আল মেহেদি, কালীগঞ্জ থানার ওসি ইউনুচ আলী, ডিএসবি ওসি মীর শরিফুল হক, ডিবি ওসি জাহাঙ্গীর আলমসহ অন্যান্যরা।






Related News

Comments are Closed