Main Menu

ঢাকার বাতাসে বিষাক্ত উপাদান, বাড়ছে ফুসফুসের ক্যান্সার

দূষণের নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থা না রেখে রাস্তা খোঁড়াখুঁড়ির কারণে রাজধানীর ঢাকার বাতাসে ধুলা ও বিষাক্ত উপাদানের উপস্থিতি বাড়ছে বলে জানিয়েছেন পরিবেশবিজ্ঞানীরা। এতে অ্যাজমাসহ ফুসফুসের ক্যান্সারে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা। ধুলা-দূষণ রোধে দুই সিটি কর্পোরেশন কী পদক্ষেপ নিয়েছে তা জানতে চেয়ে এক মাসের সময় বেধে দিয়েছেন হাইকোর্ট।

পৃথিবীতে বায়ু দূষণের ক্ষেত্রে ঝুঁকিপূর্ণ দেশের তালিকায় ১৭ তম অবস্থানে রাজধানী ঢাকা। আর রাজধানী শহরগুলোর তালিকায় ঢাকার অবস্থান দ্বিতীয়। শহরের বাতাসে ক্ষুদ্র কণিকার পার্টিকুলেট ম্যাটার ২ দশমিক ৫। যা বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার বেঁধে দেয়া মাত্রার চেয়ে প্রায় ১০ গুণ বেশি। বাসের কালো ধোঁয়া, নানা উন্নয়ন কাজের কারণে প্রতিনিয়ত ধুলা এবং বিষাক্ত উপাদানের পরিমাণ বাড়ছে। এতে দুর্ভোগ পোহাচ্ছেন রাজধানীবাসী।

সাধারণ মানুষ বলেন, ঢাকার রাস্তায় প্রতিদিন কোনো না কোনো সড়কে খোঁড়াখুঁড়ি হচ্ছেই। এতে আমাদের সর্দি, কাশিসহ বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হচ্ছি।

এক পুলিশ কর্মকর্তা বলেন, ধুলাবালিতে রাস্তায় থাকতে হবে। আমরা কোথাও যেতে পারি না।

স্বাস্থ্য-ঝুঁকি এড়াতে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বাতাসে ক্ষুদ্র কণিকার গড় মাত্রা প্রতি ঘনমিটারে ১০ মাইক্রোগ্রাম বেঁধে দিলেও ২০১৮ সালে ঢাকায় এর মাত্রা ছিল প্রতি ঘনমিটারে ৯৭ দশমিক ১ মাইক্রোগ্রাম।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভূগোল ও পরিবেশ বিজ্ঞা বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. রেজওয়ান হোসেন ভূঁইয়া বলেন, রাস্তায় খনন করা হচ্ছে। এতে স্মল পার্টিকলেগুলো যত গাড়ি যাচ্ছে এর উপর দিয়ে তাতে এগুলো ভেঙে যাচ্ছে এবং গুড়ো হচ্ছে। এবং সাথে বাতাসে আকাশের উপর থেকে ওঠে যাচ্ছে।

বাতাসে সিসা, লেড, ক্রোমিয়াম, নাইট্রোজেনের মাত্রা বেড়ে যাওয়া শ্বাসকষ্ট অ্যাজমাসহ ক্যান্সারের মত মারাত্মক রোগ হতে পারে বলে জানিয়েছেন চিকিৎসক।

বারডেম হাসপাতালে বক্ষব্যাধি ও মেডিসিন বিশেষজ্ঞ ড. দেলোয়ার হোসেন বলেন, আপনি রাস্তা বের না উপায় নেই। এর ফলে তার শ্বাসকষ্ট অ্যাজমাসহ বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হচ্ছি। সেজন্য ধুলাবালি স্থানে না যাওয়া।

দূষণ নিয়ন্ত্রণে দুই সিটি করপোরেশন ব্যর্থ হয়েছে বলে উল্লেখ করেছে হাইকোর্ট। আগামী এক মাসের মধ্যে দূষণ রোধে কার্যকর কি পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে তাও জানতে চাওয়া হয়।

বায়ু দূষণ রোধে করা এক রিটের পরিপ্রেক্ষিতে আদালত এই নির্দেশনা দেন।






Related News

Comments are Closed