যুদ্ধ বিমানের প্রহরায় পাকিস্তানে নামলেন সৌদি যুবরাজ

ব্যাপক নিরাপত্তা ব্যবস্থা এবং আয়োজনের মাঝে লাল গালিচা সংবর্ধনায় সৌদি আরবের যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানকে স্বাগত জানালেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। রোববার স্থানীয় সময় সন্ধ্যা ৭টার দিকে সৌদি যুবরাজকে বহনকারী বিমান পাকিস্তানের রাওয়ালপিন্ডির নুর খান বিমান ঘাঁটিতে অবতরণ করে।

সৌদির এই যুবরাজের দু’দিনের সফরকে কেন্দ্র করে রাজধানী ইসলামাবাদ এবং রাওয়ালপিন্ডিতে নজিরবিহীন নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। নুর খান বিমান ঘাঁটিতে বিমান অবতরণের পর বিন সালমানকে উষ্ণ অভ্যর্থনা জানান প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান।

সৌদি অতিথিদের স্বাগত জানাতে বিমান ঘাঁটিতে উপস্থিত ছিলেন পাকিস্তানের মন্ত্রিসভার সদস্য ও সেনাপ্রধান জেনারেল কামার জাবেদ বাজওয়া।

সৌদির আকাশসীমায় যুবরাজের বিমান প্রবেশের পর পাক বিমানবাহিনীর যুদ্ধবিমান জেএফ-১৬ এবং থান্ডার জেট এফ-১৭ আকাশে নিরাপত্তা দেয়। পাক নৌবাহিনীর যুদ্ধবিমান প্রহরা দিয়ে নুর খান বিমান ঘাঁটিতে নিয়ে যায় যুবরাজের বিমানকে।

ঘাঁটিতে বন্দুকের ২১টি গুলি আকাশে ছুড়ে যুবরাজকে স্বাগত জানায় পাক নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টুইটারে দেয়া এক টুইটে পাকিস্তানের তথ্যমন্ত্রী পাওয়াদ চৌধুরী বলেন, যুবরাজ তার পরিবারের সঙ্গে যোগ দিতে (তার) নিজ দেশে আসছেন।

সৌদি যুবরাজের এ সফরের সঙ্গী হিসেবে রাজপরিবারের সদস্য, মন্ত্রী, ব্যবসায়ীসহ ২০০ সদস্যের উচ্চ প্রতিনিধি দল আগেই পাকিস্তানে পৌঁছেছে। ২০১৭ সালে সৌদির যুবরাজ হিসেবে দায়িত্ব নেয়ার পর এই প্রথম পাকিস্তান সফর করছেন বিন সালমান। তার সফর ঘিরে পাকিস্তানের রাজধানী ইসলাবাদ ও রাওয়ালপিন্ডিতে কড়া নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।

শহর দুটির কিছু কিছু এলাকায় মোবাইল নেটওয়ার্ক বন্ধ ও আকাশে যে কোনো ধরনের বিমান এবং ড্রোন উড্ডয়ন নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

এছাড়া সোমবার ইসলামাবাদে সরকারি ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে। পাকিস্তানের সঙ্গে কয়েক বিলিয়ন ডলারের বিনিয়োগ চুক্তি স্বাক্ষরের পর সোমবার দু’দিনের সফরে ভারতের উদ্দেশে ইসলামাবাদ ত্যাগ করবেন সৌদি যুবরাজ।

সৌদি এই যুবরাজের পাকিস্তান সফর শনিবার থেকে শুরু হওয়ার কথা থাকলেও তা একদিন পিছিয়ে দেয় সৌদি আরব।

সূত্র : ডন






Related News

Comments are Closed