দরজা খুলতে দেরি হওয়ায় স্ত্রীকে ছুরিকাঘাত

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় দরজা খুলতে দেরি হওয়ায় স্ত্রী নুরজাহান বেগমকে (৪৫) ছুরিকাঘাত করেছে স্বামী মোহর আলী। অভিযোগ রয়েছে মোহর আলী একজন মাদকাসক্ত।

বৃহস্পতিবার রাত ১১টার দিকে ফতুল্লার দক্ষিণ সস্তাপুর এলাকার টিটু মিয়ার বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

এ সময় আশপাশের লোকজন ছুটে আসলে আশঙ্কাজনক অবস্থায় স্বামীই তার স্ত্রীকে শহরের খানপুর ৩০০ শয্যা হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিয়ে যায়।

পরে হাসপাতালের চিকিৎসক নুরজাহানকে ঢাকা মেডিকেলে প্রেরণ করেন।

নুর জাহানের মা আনোয়ারা বেগম জানান, দরজা খুলতে দেরি হওয়ায় মোহর আলী ক্ষিপ্ত হয়ে ধারালো ছুরি দিয়ে পাজরে একটি আঘাত করে। এরপর আরেকটি আঘাত করলে সেটি হাত দিয়ে আটকায় এতে পাজরের অনেকটা ভিতর পর্যন্ত ছুরি ঢুকে যায় এবং ডান হাতের মুঠের মাঝখানে অনেকটা কেটে যায়।

ফতুল্লা মডেল থানার এসআই দেবব্রুত জানান, ঘটনাস্থলে গিয়ে কাউকে পাওয়া যায়নি। হাসপাতালে খোঁজ নেয়া হচ্ছে।

খানপুর হাসপাতালের জরুরি বিভাগের ডাক্তার নাজনীন আক্তার জানান, রোগীর অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাকে ঢাকা মেডিকেলে প্রেরণ করেছি। তার স্বামীই তাকে নিয়ে গেছে।

এলাকাবাসী জানায়, নুরজাহানের স্বামী মোহর আলী মাদকাসক্ত এবং চিহ্নিত চোর। প্রায় সময় তার স্ত্রীর সঙ্গে বাসায় ঝগড়া করে এবং ঘরের ভিতরেই মাদক সেবন করে।

এ বিষয়ে বাড়ির অন্যান্য ভাড়াটিয়ারা প্রায় সময় বাড়িওয়ালার কাছে অভিযোগ করেও কোনো প্রতিকার পায়নি।






Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.