জয়ী না হলে আমরা কেউ থাকব না: শেখ হেলাল

জুয়েল রানা, যশোর জেলা প্রতিনিধি: সংসদ সদস্য শেখ হেলাল উদ্দীন বলেছেন, ‘একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন আমাদের জন্য কঠিন নির্বাচন। এই নির্বাচনে জয়ী হলে আমরা টিকে থাকবো, না হলে আমরা কেউ থাকব না’।
তিনি বলেন, ‘দেশ আজ দুটি ভাগে বিভক্ত। এক ভাগে রয়েছে শেখ হাসিনা আর আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের শক্তি। অন্যপক্ষে রয়েছে বিএনপির নেতৃত্বে স্বাধীনতাবিরোধী শক্তি। যারা বাংলাদেশের অস্তিত্বকে স্বীকার করে না।’
বৃহস্পতিবার বিকেলে যশোর পৌর কমিউনিটি সেন্টারে যশোর জেলা আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। সভায় সভাপতিত্ব করেন জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি শহিদুল ইসলাম মিলন।
শেখ হেলাল বলেন, ‘যশোরবাসীর জন্য আমি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার একটা বার্তা নিয়ে এসেছি। তা হলো, ৩০ ডিসেম্বরের নির্বাচনে সবকিছু ভুলে ঐক্যবদ্ধ হয়ে নৌকা প্রতীককে জেতাতে হবে।’
সভায় সম্মানিত অতিথি হিসেবে আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য পীযূষকান্তি ভট্টাচার্য, বিশেষ অতিথি হিসেবে দলের কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম সম্পাদক সংসদ সদস্য আব্দুর রহমান, কার্যকরি সদস্য এসএম কামাল, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহীন চাকলাদার বক্তৃতা করেন।
বর্ধিত সভায় যশোরের ছয়টি আসনের বর্তমান সংসদ সদস্য ও দলীয় মনোনয়ন পাওয়া প্রার্থী কাজী নাবিল আহমেদ, শেখ আফিল উদ্দিন, স্বপন ভট্টাচার্য্য, মনিরুল ইসলাম, মেজর জেনারেল(অব.) ডা. নাসির উদ্দিনসহ বিভিন্ন উপজেলার নেতারা উপস্থিত ছিলেন।
সভায় শেখ হেলাল আরো বলেন, ‘প্রাচীন ও বড় দল হিসেবে আওয়ামী লীগ থেকে অনেকেই মনোনয়ন চাইতে পারেন। এটা খারাপ কিছু নয়। কিন্তু সবাইকে মনোনয়ন দেওয়া সম্ভব নয়। স্বাভাবিকভাবেই অনেকেই মনোনয়ন পাননি। এটাকে যদি কেউ খারাপভাবে নেন, তাহলে সেটা ভালো রাজনীতি হবে না। যিনিই মনোনয়ন পান- আমরা সবাই ঐক্যবদ্ধ থাকবো নৌকার পক্ষে। আমরা এক থাকলে, ঘর ঠিক থাকলে, দল ঠিক থাকলে ইনশাআল্লাহ বাংলাদেশে আওয়ামী লীগকে মোকাবেলা করার শক্তি কারো নেই।’
তিনি বলেন, ‘বড় দলে গ্রুপিং থাকবেই। তাই বলে দলের প্রয়োজনের সময় আপনারা কেউ ভুল সিদ্ধান্ত নেবেন না। নেত্রী আমাদের শেষ আস্থার জায়গা। উনি যে নির্দেশ দেবেন, আমরা সেটা বাস্তবায়ন করব। আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় থাকলে আপনারা ভালো থাকবেন। আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় না থাকলে দেশ ভালো থাকবে না। তাই নৌকাকে বিজয়ী করে আপনারা আওয়ামী লীগকে আবার ক্ষমতায় নিয়ে আসবেন। ইনশাআল্লাহ আগামীতে বাংলাদেশে কেউ আর বিএনপির নাম নেবে না।’
তিনি বলেন, ‘আওয়ামী লীগের সবচেয়ে খারাপ সময়েও যশোরবাসী আওয়ামী লীগকে ভোট দিয়েছে। এবারো যশোরবাসী ভুল করবে না।’
তিনি জেলার বিভিন্ন স্থান থেকে আসা দলীয় নেতা-কর্মীদের উদ্দেশে বলেন, ‘কে মনোনয়ন পেল, সে আপনার লোক না কার লোক, এসব দেখতে যাবেন না। নেত্রী শেখ হাসিনা মনোনয়ন দিয়েছেন। শেখ হাসিনাকে যদি আবার প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দেখতে চান, তাহলে নৌকায় ভোট দিয়ে আওয়ামী লীগকে বিজয়ী করতে হবে। সবাইকে মনে রাখতে হবে, আপনি নৌকায় ভোট দিচ্ছেন মানেই আপনি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ভোট দিচ্ছেন।’





Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.