বেকারদের পুঁজি করে লাইফওয়ের প্রতারণার ফাঁদ,নীরব ভুমিকায় প্রশাসন

মো: হাসান উত্তরা প্রতিনিধি; রাজধানীর বিভিন্ন শহরের অলিতে গলিতে গড়ে উঠেছে লাইফ ওয়ের নামক প্রতারক চক্র। এদের রাজধানীর শহর জুড়ে প্রভাব বিস্তার করে বিভিন্ন স্থানীয় ও প্রশাসনকে ম্যানেজ করে নাকের ডগার উপর আমূল্য সেবন করছে বলে জানা যায়। এই প্রতারক চক্র বাংলাদেশের বিভিন্ন জেলা থেকে দালালের মাধ্যমে বেকার যুবক যুবতীদের কর্মসংস্থানের কথা বলে কোটি কোটি টাকা আত্মসাৎ করেছে বলে একাধিক অভিযোগ উঠে এসেছে। প্রথমে কোন ব্যবিÍ এখানে চাকরি নিতে হলে পঞ্চাশ হাজার টাকা থেকে এক লক্ষ টাকা জামানত বাবদ দিতে হয়। টাকা দেওয়ার পরে ঐ ব্যাক্তিকে বলা হয় অন্য কাউকে নিয়ে আসতে পারলে মাসিক বেতন পাঁচ হাজার টাকা করে এবং দুইজন আনতে পারলে দশ হাজার টাকা বেতন প্রদান করা হবে। চাকুরী থেকে কেউ চলে গেলে জামানতের টাকা চাইলে প্রতারক লাইফওয়ে বিভিন্ন তালবাহানা দেখিয়ে কিছু কম দামী ও অযোগ্য প্রডাক্টস্ দিয়ে জামানতের টাকা কেটে দেওয়া হয়। বাংলাদেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে একাধিক লোকজন অভিযোগ জানায় তাদের ভিটে মাটি গরু, ছাগল জীবনের সকল সম্ভল বিক্রি করে এদের দিয়ে আজ তার নিঃস্বভাবে জীবনের সাথে যুদ্ধ করে বেঁচে আছে। তাদের মূলত প্রধান উদ্দেশ্য বেকার যুবকদের ধোঁকা দিয়ে কে=াটি কোটি টাকা আত্মসাৎ করা। রাজধানীর উত্তরা সেক্টর-১০ (হাজীপাড়া) এমন একটি প্রতারক চক্রের সন্ধান মেলে। ভিতরে প্রবেশ করতে গেলে দেখা যায় ঝুলন্ত একটি তালা, কিছুক্ষণ দরজা টোকা দিতে থাকলে বেড়িয়ে আসে লাইফওয়ের প্রতারকচক্রের একজন সদস্য। তাকে বাহির থেকে তালা মাড়ার উদ্দেশ্য জিজ্ঞাসা করলে, কতিপয় তিনি জানান আমাদের বস্ মো: ফিরোজ/ সুমন সবসময় তালা মাড়তে বলেছেন। পরবর্তীতে তাকে এখানের কাজ সম্পর্কে জিজ্ঞাসা করলে তিনি ক্যামেরার সামনে থেকে সরে গিয়ে আবার বাহির থেকে তালা মেরে ভিতরে চলে যায়। আশেপাশের স্থানীয়দের জিজ্ঞাসা করলে জানা যায় এই প্রতারক ব্যবসার মূল হোতা ফিরোজ এবং সুমন। দীর্ঘদিন যাবত তারা এই চক্রের সাথে সম্পৃক্ত। স্থানীয় সূত্রে আরও জানা যায় কিছু দিন আগে উত্তরা র‌্যাপিড এ্যাকশান ব্যাটালিয়ান অভিযান চালিয়ে লাইফওয়ের বেশ কিছু সিন্ট্রিকেট সদস্যকে আটক করে জেল হাজতে প্রেরণ করে। উক্ত লাইফওয়ের সর্ম্পকে উত্তরা পশ্চিম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলী হোসেন খানকে মুঠোফোনে ফোন দিলে তিনি ফোন ধরেন না। পরবর্তীতে উত্তরা পশ্চিম থানার তদন্ত ওসি মো: আব্দুর রাজ্জাককে ফোন দিলে তিনি জানান আমাদের কেউ লিখিতভাবে অভিযোগ জানালে আমরা ব্যবস্থা করে।






Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.