দেউলিয়া হয়ে যাচ্ছে বাজার কাঁপানো স্মার্টফোন জিওনি

আকর্ষণীয় ফিচারে নতুন নতুন স্মার্টফোনে বাজার মাতিয়ে রাখা জিওনি’র ‘গল্প’ স্মার্টফোনপ্রেমীদের কাছে খুব বেশিদিন আগের খবর নয়। কোম্পানিটি দ্রুত আলোচনায় এসেছিলো সবচেয়ে স্লিম ফোনের মাধ্যমে। যার সূত্র ধরে ভারতের বাজারে একসময় প্রতিনিধিত্বও করেছিলো। অথচ ‘দেনার দায়ে’ সেই কোম্পানিটি এখন নাকি দেউলিয়া হতে বসেছে।

সাউথ চায়না মর্নিং পোস্টের রিপোর্টের বরাতে এমনই খবর দিয়েছে ভারতীয় কয়েকটি সংবাদমাধ্যম।

তারা বলছে, সরবরাহকারীদের বকেয়া পরিশোধ করতে ব্যর্থ হচ্ছে স্মার্টফোন প্রস্তুতকারী চীনা প্রতিষ্ঠান জিওনি। ছোট ছোট অনেক কোম্পানি এখন পর্যন্ত জিওনির কাছ থেকে তাদের বকেয়া পায়নি। এতে কোম্পানিটির বাজারে বকেয়ার পরিমাণ দাঁড়িয়েছে প্রায় ২৪৫ কোটি ডলার (২.৪৫ বিলিয়ন ডলার)।

তবে এর মধ্যে জানা গেলো আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ তথ্য। যা কোম্পানিটির দেউলিয়ার পেছনে কারণ বলে ধারণা করা হচ্ছে। তা হলো, জিওনি’র চেয়ারম্যান লিউ লিরং একটি ক্যাসিনোতে বাজি ধরে প্রায় সাড়ে ১৪ কোটি ডলার (১৪৪ মিলিয়ন ডলার) হেরেছেন। এমন খবরে চীনের আদালত গত দুই বছর লিরংয়ের ৪১.৪ শতাংশ শেয়ার বন্ধ করে দেয়। যদিও ভারত ও চীনের বাজারে এখনও কোম্পানিটি তাদের স্মার্টফোন বিক্রি করছে।

এর আগে চলতি বছরের প্রথমে কোম্পানিটি তার ভারতের ইউনিট ভারতীয় সাবেক সিইও’র কাছে বিক্রির পরিকল্পনা করে। শেষ পর্যন্ত কি সিদ্ধান্ত হয় সে বিষয়ে কোম্পানির পক্ষ থেকে কোনো তথ্য জানা যায়নি।

এর মধ্যে গত বছর জিওনি ভারতের বাজারে তাদের সরাসরি কার্যক্রম পরিচালনা শুরু করে। এরপর কোম্পানিটির ভারতীয় প্রধান অরবিন্দ বরহা দায়িত্ব ছেড়ে দেন।

২০১৩ সালে ভারতের বাজারে প্রবেশ করে জিওনি। সময়ের ব্যবধানে বাজার কাঁপিয়ে র্শীষে পৌঁছে যায় চীনা কোম্পানিটি। তবে সবচেয়ে বেশি আলোচিত হয় বিশ্বের সবচেয়ে পাতলা স্মার্টফোন ‘ইলিফ এস৫.১’ বাজারে ছাড়ার মাধ্যমে।

এর মধ্যে ব্যবসা সম্প্রসারণ ও তরুণ ক্রেতা আকর্ষণে ২০১৬ সালে বলিউড সেনসেশন আলিয়া ভাটকে ব্র্যান্ড এম্বাসেডর নিয়োগ দেয় জিওনি। ২০১৭ সালে নিয়োগ দেওয়া হয় ‘বাহুবলি খ্যাত’ প্রভাসকে। ওই বছর ৪.৬ শতাংশ বাজার দখলে রেখে সেলফি ফোনের কোম্পানির দৌড়ে তাল মিলিয়ে এগিয়ে যায় কোম্পানিটি।

তবে চলতি বছরের দ্বিতীয় প্রান্তিকে জিওনি’র ফোনের কাটতিতে ব্যাপক পতনের খবর জানা গেছে অ্যান্ড্রয়েড অথরিটি’র রিপোর্টে। তৃতীয় প্রান্তিকে কোম্পানিটির পতনের ধারা অব্যাহত থাকায় ভারতের বাজারের মোট ৬০ শতাংশ দখলে রেখেছে তিন চীনা কোম্পানি হুয়াই, ভিভো, অপ্পো।






Related News

Comments are Closed