Main Menu

মের্সাস এস.এম জিতু এন্টারপ্রাইজ নিজেরাই অকটেন তৈরির কারিগর

নারায়ণগঞ্জ জেলার সিদ্ধিরগঞ্জ থানাধীন বারমাশীল এলাকায় অবস্থিত পদ্মা অয়েল কোম্পানি প্যাকড পয়েন্ট ডিলার। বারমাশীল এলাকার স্থায়ী বাসিন্দা মো- শেখ দেলওয়ার হোসেন এস.এম. জিতু এন্টারপ্রাইজের মালিক। তিনি পদ্মা অয়েল কোম্পানির তেলের ব্যবসার পাশাপাশি চোরাই তেলের সিন্ডিকেটের মাধ্যমে চোরাই তেলের ব্যবসা করে কোটি কোটি টাকার মালিক। চোরাই তেলের পাশাপাশি চট্টগ্রাম-ঢাকা হাইওয়ে রোড, ধনুহাজী রোড সংলগ্ন পায়নাদী বিশ্বরোড এলাকায় মের্সাস এস.এম. জ্যোতি পেইন্টস এন্ড ক্যামিকেল কোঃ অন্তরালে জিতু এন্টারপ্রাইজের মালিক দেলওয়ার হোসেন নিজেরাই অকটেন তৈরি করছেন। বিশ্বস্ত সূত্রে জানা যায়, বাতাস নামক একটি তেলের সাথে লাল রং মিশিয়ে অকটেন তৈরি করে বাজারজাত করছে। যা ইঞ্জিনের জন্য অনেক ক্ষতিকর। এম.টি.টি কে পেট্রোল বলে বাজারজাত করে যাচ্ছে। এছাড়া ৪০০০হাজার লিটার ডিজেলের সাথে ৫০০০ হাজার লিটার কাচা মিশিয়ে ৯০০০ হাজার লিটার ডিজেল তৈরি করে বাজারজাত করে রাতারাতি কোটি কোটি টাকা, বাড়ি-গাড়ি, ব্যাংক ব্যালেন্সের মালিক। যেমনি প্রতারিত হচ্ছে ক্রেতারা, তেমনি সরকার হারাচ্ছে রাজস্ব। মের্সাস এস.এম. জ্যোতি পেইন্টস এন্ড ক্যামিকেল কোঃ সাইনবোর্ড লাগানো ফ্যাক্টরিটির ভিতরে কি হচ্ছে? দেখার কেউ আছে কি? এইসব অবৈধ ভেজাল পণ্য প্রস্তুতকারী ও চোরাই সিন্ডিকেটের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সু-দৃষ্টি কামনা করছেন সচেতন মহল। এ ব্যাপারে, জিতু এন্টারপ্রাইজের মালিক দেলওয়ার হোসেনের মুঠোফোনে কথা হলে তিনি বলেন, এসব মিথ্যা ও বানোয়াট।






Related News

পিএসএসকেজিকেইউ এর খাবার সামগ্রী বিতরণ সফল ভাবে সম্পন্ন

তানিয়া আক্তার তনু,সাভার ঢাকাঃ প্রতিভা সাহিত্য সংস্কৃতি ক্রীড়া ও গণমাধ্যম কল্যাণ ইউনিটি’র (পিএসএসকেজিকেইউ)উদ্যোগে গতকাল বৃহস্পতিবার দিনব্যপী ঢাকা জেলার সাভার উপজেলার সাভার,আশুলিয়া ও ইয়ারপুর ইউনিয়নের ১৫০টি দুস্থপরিবারে খাবার সামগ্রী পৌছে দিতে সফল হয়েছেন সংগঠনটির প্রতিষ্ঠাতা ও স্থায়ী পরিষদের চেয়ারম্যান জনাব মোঃমোস্তাফিজুর রহমান শ্রাবণ। এসময় তার সঙ্গে ছিলেন খাবার সামগ্রী বহনকারী ভ্যান চালক মোঃ আমিনুর রহমান ও মোঃসাজ্জাদ হোসেন। বর্তমান পরিস্থিতিতে একটি সাবান বিতরণ করার সময় পাঁচ-ছয়জন ব্যক্তি একসাথে হাত বাড়িয়ে ছবি তুলে স্যোশ্যালRead More

Comments are Closed