Main Menu

কাউন্সিলর বাদলের ষড়যন্ত্রের কবলে সানারপাড় স্কুল

01-4-mediumসিদ্ধিরগঞ্জঃ সিদ্ধিরগঞ্জের সানারপাড় শেখ মোরতোজা আলী উচ্চ বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে এস.এস.সি পরীক্ষার্থীদের কাছ থেকে অতিরিক্ত অর্থ আদায়ের অভিযোগ তুলে নির্বাচনী ফাঁয়দা হাসিল করার ষড়যন্ত্রে নেমেছে নাসিক ৩ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর শাহ জালাল বাদল। সনামধন্য স্কুলটির প্রধান শিক্ষক জহিরুল ইসলাম এবং কাউন্সিলর বাদলের প্রধান প্রতিপক্ষ ৩ নং ওয়ার্ডের সম্ভাব্য কাউন্সিলর প্রার্থী ওই স্কুলের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি তোফায়েল হোসেনকে সামাজিক ভাবে হেয় পতিপন্ন করতে বাদল ও তার সহযোগীরা উঠে পড়ে লেগেছে। যুবলীগ নেতা তোফায়েল হোসেন স্কুলটির ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি হওয়ায় বাদল মোটা অংকের অর্থ খচর করে গত বৃহস্পতিবার বেলা ১২ টায় তার অন্যমত সহযোগী ছাত্রলীগ নেতা বাপ্পির নেতৃত্বে বাদলের কয়েকজন সমর্থক স্কুলে গিয়ে কিছু পরীক্ষার্থী ও তাদের অভিবাবকদের বুঝিয়ে ক্ষেপিয়ে তুলে। হড্রগুল করলে ফরম ফিলাপের ফি কমাবে এমন আশ্বাস দিয়ে বাদল বাহিনী শিক্ষার্থীদের একত্র করে বিক্ষোভ করায়। অন্যদিকে বাদল নিজে বিভিন্ন গণমাধ্যম কর্মীদের স্কুলে পাঠিয়ে অতিরিক্ষ ফি আদায়ের অভিযোগে স্কুলের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি তোফায়েল হোসেন ও প্রধান শিক্ষক জহিরুল ইসলামের বিরুদ্ধে সংবাদ প্রকাশ করার জন্য আর্থিক সুবিধা দেয়। স্কুলে গণমাধ্যম কর্মীদের পাশাপাশি বাপ্পির নেতৃত্বাধিন বাদল বাহিনীর তৎপরতা উল্লেখ যোগ্য ছিল বলে প্রত্যক্ষদর্শী এলাকাবাসী জানায়। আনেক অভিবাক ও শিক্ষার্থী জানায় এস.এস.সি পরীক্ষার্থীদের কাছ থেকে স্কুল কর্তৃপক্ষ ৪৬০০ টাকা নিচ্ছে তা সত্য। তবে সব টাকা ফরম ফিলাপের জন্য নয়। পরীক্ষার্থীরা ভাল ফলাফল অর্জনের জন্য তিন মাসের কোচিং ও মাসে একটি করে টেস্ট পরীক্ষা গ্রহনের জন্য ফি বাদেও অতিরিক্ত টাকা নিচ্ছে। তবে যে সব ছাত্রের অভিবাবকরা আর্থিক ভাবে দুর্বল বা বেশী টাকা দিতে অক্ষম তাদের কাছ থেকে সেই অতিরিক্ত টাকা নিচ্ছেনা। স্কুলের একাধিক শিক্ষক জানায় এমনও ছাত্র রয়েছে যাদের বোর্ড নির্ধারিত ফি‘র চেয়েও কম নিয়ে ফরম ফিলাপের ব্যাবস্থা করে দিচ্ছে ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি তোফায়েল হোসেন। স্কুলটি প্রতিবছরের ন্যায় কৃতিত্বপূর্ণ ফলাফল অর্জনের জন্যই অভিবাবকদের সাথে আলোচনা করেই অতিরিক্ত টাকা নিচ্ছে। এনিয়ে অভিবাবকদের কোন অভিযোগ নেই। নির্বাচনী প্রতিপক্ষ তোফায়েলকে ঘায়েল ও সামাজিক ভাবে হেয় করতেই কাউন্সিলর বাদল অর্থ খরচ করে তার বাহিনী নিয়ে অনগত কিছু অভিবাবকদের ফুসলিয়ে ক্ষেপিয়ে তুলে বিক্ষোভ করিয়েছে বলে স্থানীয়রা মন্তব্য করেন।






Related News

Comments are Closed