Main Menu

আসন্ন সিটি নির্বাচনে সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর হিসেবে মাকসুদা মোজাফ্ফরের বিকল্প নেই

01-1সিদ্ধিরগঞ্জ: আসন্ন নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে ১,২ ও ৩ নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর হিসেবে মাকসুদা মোজাফ্ফরের বিকল্প নেই। বিগত ৫ বছরে দায়িত্ব পালনে এই মহিলা কাউন্সিলরের বিরুদ্ধে কোন অভিযোগ নেই ওয়ার্ডবাসীর। তিনি ৭’খুন মামলার সময় নাসিক ২ নং ও ৩নং ওয়ার্ডে একক ভাবে দায়িত্ব পালন করেন। স্থানীয়দের অনুরোধে গত সিটি নির্বাচনে কাউন্সিলর হিসেবে মনোনয়ন পত্র জমা দিয়ে মাকসুদা মোজাফ্ফর চলে যায় হজ্ব করতে। গণসংযোগ ও ভোট প্রার্থনা ছাড়াই নিকটতম প্রতিদ্বন্ধি প্রার্থীর চেয়ে ১৬ হাজার ভোট বেশী পেয়ে মাকসুদা মোজাফ্ফর সংরিক্ষত মহিলা কাউন্সিলর নির্বাচিত হয়। পরে পবিত্র হজ্ব করে দেশে ফিরে এসে তিনি ওয়ার্ডবাসীর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে দায়িত্ব পালন শুরু করেন। তার দয়িত্ব পালনে কোন অবহেলা,অনিয়ম নেই। একজন জনপ্রতিনিধি হিসেবে তার মত সৎ ও আদর্শবান নারী খোঁজে পাওয়া বর্তমান সমাজে বিরল। তাই ওয়ার্ডবাসী তাকেই চায়। জনগণের ইচ্ছার প্রতি সম্মান জানিয়ে মাকসুদা মোজাফ্ফর আসছে সিটি নির্বাচনে আবার কাউন্সিলর পদে নির্বাচন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। তাকে ছাড়া সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর হিসেবে সচেতন ভোটাররা অন্য কাউকে নিয়ে ভাবছেনা। মিজমিজি বাতানপাড়া এলাকার সনামধন্য পরিবারের গৃহবধু মরহুম মোজাফ্ফর কন্ট্রাকটরের স্ত্রী মাকসুদা মোজাফ্ফর তার স্বামীর আদর্শকে ধরে রেখে ব্যাপক জনপ্রিয়তা অর্জন করেছেন। লোভ-লালসা, হিংসা-দেমাকহীন এই মহিলার প্রতি রয়েছে সকল শ্রেণীর মানুষের বিশ্বাস,ভালবাসা ও শ্রদ্ধা। একজন বয়স্ক নারী হয়েও তিনি ১,২ ও ৩ নং ওয়ার্ডের বিশাল এলাকায় প্রতিনিয়তই ঘুরে বেড়ান। কোন এলাকায় কি সমস্যা তার খোঁজ খবর নেন। জনদুর্ভোগ লাগবে তিনি কাল বিলম্ব করেন না। তিনি তার সাধ্যমতে জনগণনের সেবা করে যাচ্ছেন। যে কারণে তার প্রতি ওয়ার্ডবাসীর কোন অভিযোগ নেই। যে আশা ভরসা নিয়ে ওয়ার্ডবাসী গত নির্বাচনে তাকে বিজয়ী করেছে তার প্রতিফল তিনি দেখিয়েছন বিশ্বস্থতার সাথে। তাই ওয়ার্ডবাসী আবার তাকে সংরক্ষিত কাউন্সিলর হিসেবে দেখতে চায়। বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতা ও গণ্যমান্য ব্যক্তিদের সাথে কথা হলে তারা জানায়,গত সিটি নির্বাচনের চেয়ে আরো অনেক ভোট বেশী পেয়ে আসছে নির্বাচনে মাখসুদা মোজাফ্ফর নির্বাচিত হবে। সাধারণ ভোটাররাও তাকে ছাড়া অন্য কাউকে নিয়ে ভাবছেনা। স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, গত নির্বাচনে ১,২ ও ৩ নং ওয়ার্ডে ১০ জন প্রার্থী নির্বাচন করেছিল। তার মধ্যে দ্বিতীয় স্থান অধিকারী ৩ নং ওয়ার্ডের সানারপাড়ের বাসিন্ধা কুলসুম আক্তার নেসপাতি পেয়েছিল ৩ হাজারের কিছু বেশী ভোট। বিজয়ী প্রার্থী মাকসুদা মোজাফ্ফর পেয়েছিন ১৯ হাজারের উপরে। আর বাকী ৮ জনের মধ্যে ১ জন ৯‘শ আর বাকীরা কেহ ৫‘শর উপরে উঠতে পারেনি। সে হিসেবে এই সংরক্ষিত আসনে মাকসুদা মোজাফ্ফরের বিকল্প আর কোন প্রার্থী নাই। থাকলেও যোগ্য মনে করছেননা ভোটাররা।






Related News

Comments are Closed