Main Menu

আসন্ন সিটি নির্বাচনে ৫ নং ওয়ার্ডের সম্ভাব্য কাউন্সিলর প্রার্থী আনিসকেই যোগ্য মনে করছে ভোটাররা

00-medium সিদ্ধিরগঞ্জ: আসন্ন নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে ৫নং ওয়ার্ডের সম্ভাব্য কাউন্সিলর প্রার্থী হাজী আনিসুর রহমান ব্যতিক্রমী প্রতিশ্রুতি নিয়ে মাঠে নেমেছেন। সাইলো গেইট এলাকার জনপ্রিয় শ্রমিক নেতা ও সমাজ সেবক আনিসুর রহমান নির্বাচিত হলে ওয়ার্ডবাসীর সেবায় নিজেকে আতœনিয়োগ করে ডিজিডাল ওয়ার্ড গড়ে তুলার আশ্বাস দিয়ে মতবিনিময় সভা ও গণসংযোগ শুরু করেছেন। দেশের স্বাধীনতার স্থপতি জাতীর জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শের সৈনিক নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য উন্নয়নের রূপকার একে.এম শামীম ওসমানের বলিষ্ট কর্মী আনিস কাউন্সিলর নির্বাচিত হলে ৫ নং ওয়ার্ডকে নববধূ রূপে সাজানোর অঙ্গিকার করায় ভোটারদের ব্যাপক সারা পাচ্ছেন।
জানা গেছে, নাসিক ৫ নং ওয়ার্ড সাইলো গেইট এলাকার জনপ্রিয় ব্যক্তি হাজী আনিসুর রহমান কাউন্সিলর নির্বাচন করার ঘোষনা দিয়ে ওয়ার্ডবাসীর ব্যাপক সারা পাচ্ছে। দীর্ঘদিন ধরে নিজেকে সামাজিক কাজে জড়িয়ে থাকা আনিসকে কাউন্সিলর হিসেবে পেলে ওয়ার্ডের ব্যাপক উন্নয়ন ও সর্বশ্রেণীর মানুষের আশা আকাঙ্খার প্রতিফলন ঘটবে বলে মনে করছেন ভোটাররা। একাধিক ওয়ার্ডবাসীর সাথে কথা বলে জানা গেছে, আনিসুর রহমান বাংলাদেশ আন্তঃজিলা ট্রাক চালক ইউনিয়ন(রেজি নং-১৬৬৫) সিদ্ধিরগঞ্জ সাইলো শাখার সভাপতির দায়িত্ব পালন করে ব্যাপক সুনাম অর্জন করেছেন। বর্তমানে তিনি বাংলাদেশ ট্রাক কার্ভাডভ্যান মালিক সমিতির সাইলো শাখার সভাপতির দায়িত্ব পালন করছেন। এ ছাড়াও আনিস সরদার বাজার জামে মসজিদের সভাপতি, কলাবাগ আলিয়া জামে মসজিদের সাধারণ সম্পাদক,আল বারু হাজী জামেমসজিদের সহ-সভাপতি, সিদ্ধিরগঞ্জ দারু সূন্না ইসলামিয়া আলিম মাদ্রাসার অভিবাবক প্রতিনিধি ও চরমোনাই ল কমিটি সভাপতি হিসেবে বিচক্কনতার সাথে দায়িত্ব পালন করছেন। সাইলো মুন্সিপাড়া এলাকায় নিজ অর্থায়নে আনিসুর রহমান ডাসবিন নির্মাণ করে দিয়ে ব্যাপক জনপ্রিয়তা অর্জন করেছেন। এছাড়াও ওয়ার্ড এলাকার বিভিন্ন স্কুল, মসজিদ, মাদরাসা, এতিমখানা ও অসহায় গরীব দুঃখি মানুষকে নিয়মিত আর্থিক সহায়তা করে সকলের প্রিয় ব্যক্তি হিসেবে পরিচিতি লাভ করেছে আনিসুর রহমান। তার এ জনপ্রিয়তার প্রমাণ পাওয়া গেছে গত ২৯ অক্টোবর এমপি শামীম ওসমানের ডাকা জনসভার দিন। সেদিন আনিসের নেতৃত্বে ৫ নং ওয়ার্ড থেকে যে বিশাল মিছিল ফতুল্লার ওসমানী স্টেডিয়াম সংলগ্ন বালুর মাঠের জনসভায় যোগ দিয়েছে তাতে সকলকেই তাক লাগিয়ে দিয়েছে আনিস। তার মিছিল দেখে জেলার শীর্ষ আওয়ামীলীগ নেতারা অভিনন্দন ও স্বাগত জানিয়েছে। এলাকার উন্নয়ন ও নিজেকে সমাজসেবা মূলক কাজে নিয়োজিত রাখায় ওয়ার্ডবাসী আনিসকে কাউন্সিলর হিসেবে দেখতে চায়। এর কারণ হিসেবে সাইলো, সরদারপাড়া, মুন্সিপাড়াসহ বিভিন্ন পাড়ামহলার বাসিন্দারা জানায়, আনিস কাউন্সিলর হলে যে কোন সময় যে কোন আবদার নিয়ে তার সাথে গেলে খালি হাতে ফিরে আসতে হবে না। তার সাথে দেখা করতে গেলেও অনুমতির দরকার পরবেনা। যে কোন সময় তাকে ডাকলে পাওয়া যাবে। এই জন্য কাউন্সিলর হিসেবে তাকে প্রয়োজন।
নির্বাচন প্রসঙ্গে আনিসুর রহমানের সাথে কথা হলে তিনি জানান, আমি সবসময়ই এলাকাবাসীর সুখ-দুঃখ, বিপদ-আপদে পাশে থাকি। কাউকে শ্রম দিয়ে কাউকে অর্থ দিয়ে সাহায্য করা আমার অভ্যাসে পরিণত হয়েছে। মানুষের ভালবাসা ও সম্মান নিয়ে এ বেঁচে থাকতে চাই। এমন কাজ করতে চাই যাতে আমার মৃত্যুর পর মানুষ আমাকে স্বরণ রাখে। ওয়ার্ড এলাকার বিভিন্ন গণ্যমান্য ব্যক্তি ও মুরব্বিদের অনুরোধে আসন্ন সিটি নির্বাচনে ৫ নং ওয়ার্ড থেকে কাউন্সিলর নির্বাচন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। ওয়ার্ডবাসী যদি আমাকে যোগ্য মনে করে তাদের মূল্যবান ভোট দিয়ে নির্বাচিত করে,তাহলে আমি এর যথাযথ প্রতিদান দিতে সবসময় সোচ্চার থাকবো। ওয়ার্ডকে এমন ভাবে গড়ে তুলবো যাতে জনপ্রতিনিধি হিসেবে সাধারণ মানুষ আজিবন আমার নাম স্বরণ রাখে। পরিশেষে তিনি নির্বাচনী সালাম ও ওয়ার্ডবাসীর মঙ্গল কামনা করে সকলের দোয়া চেয়েছেন।






Related News

Comments are Closed