Main Menu

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় মন্দির, ঘরবাড়ি ভাংচুর-লুটপাট

14900414_10208832993756119_7281718607283607559_n

মাধবপুর প্রতিনিধি: হবিগঞ্জের মাধবপুর বাজারে অবস্থিত দুটি মন্দিরে হামলা চালিয়ে ভাংচুরের ঘটনা ঘটেছে। রোববার বিকেলে এ ঘটনা ঘটে। এ সময় হামলাকারীরা হিন্দু সম্প্রদায়ের কয়েকটি বাড়িতেও হামলা করে।

জানা যায়, ‘ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নাসিরনগর উপজেলার হরিপুর গ্রামের এক হিন্দু যুবক ফেসবুকে ইসলাম ধর্ম নিয়ে কটূক্তি করেন’ এই অভিযোগে রোববার বিকেলে মাধবপুরে প্রতিবাদ সমাবেশ করে ‘আহলে সুন্নাতওয়াল জামাত’ নামের একটি সংগঠন।

উপজেলা চত্বরে আয়োজিত প্রতিবাদ সভায় আশপাশের বিভিন্ন এলাকার লোকজন অংশ নেয়। প্রতিবাদ সভা চলাকালীন সমাবেশে অংশ নেওয়া কিছু লোক মিছিল নিয়ে মাধবপুর বাজারে প্রবেশ করে পাশাপাশি দুটি মন্দির- ঝুলন মন্দির ও কালি মন্দিরে হামলা করে। তারা ঝুলন মন্দিরের মূর্তি ভাংচুর ও কালি মন্দিরের গেইট ও আসবাবপত্র ভাংচুর করে। এসময় আশেপাশের কয়েকটি হিন্দু বাড়িতেও ইট পাটকেল নিক্ষেপ করে তারা। র‌্যাব, পুলিশ ও বিজিবি ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে। এ সময় বাজারের ব্যবসায়ীরা আতংকে দোকানপাট বন্ধ করে ফেলে।

ঘটনাস্থল পরিদর্শনে এসে হবিগঞ্জের জেলা প্রশাসক সাবরিনা আলম বলেন, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পুলিশের পাশাপাশি দুই প্লাটুন বিজিবি(বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ) মোতায়েন করা হয়েছে। ভাংচুরের ঘটনা তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

14639788_10208833178840746_8998802047066758495_n

মন্দির ভাংচুরের খবর পেয়ে স্থানীয় সংসদ সদস্য এডভোকেট মাহবুব আলী, পুলিশ সুপার জয়দেব কুমার ভদ্র, জেলা ডেপুটি ম্যাজিস্ট্রেট(এডিএম) এমরান হোসেন, উপজেলা চেয়ারম্যান সৈয়দ ফজলে আকবর মোঃ শাহজাহান,উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোকলেছুর রহমান , থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) মোকতাদির হোসেন ,পরিদর্শক(তদন্ত) সাজেদুল ইসলাম পলাশ, ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল আজিজ, উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সম্পাদক তাজুল ইসলাম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

উপজেলা পূজা উদযাপন কমিটির সভাপতি সুনীল দাস জানান, মন্দিরে হামলার ঘটনায় আমরা মর্মাহত।

এ ব্যাপারে ৫৫ বিজিবির অধিনায়ক লে.কর্নেল সাজ্জাদ হোসেন জানান, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করার জন্য ২ প্লাটুন বিজিবি সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে।

র‌্যাব -৯ শ্রীমঙ্গল ক্যাম্পের অধিনায়ক মাঈন উদ্দিন জানান, র‌্যাব উপস্থিত হওয়ার আগেই মন্দিরে হামলা করা হয়েছে। তবে কারা মন্দিরে হামলা করেছে প্রমাণ পাওয়া গেলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

পুলিশ সুপার জয়দেব কুমার ভদ্র বলেন, যারা মন্দিরে হামলা ভাংচুর করে আতংক সৃষ্টি করেছে তদন্ত করে ব্যবস্থা তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

14732148_581593215298936_725930818898741323_n






Related News

Comments are Closed