Main Menu

রক্তচোষা অবৈধ চাঁদা বন্ধের দাবীতে বন্দরের মালিবাগে লেগুনা শ্রমিকদের মানববন্ধন সম্পন্ন

leguna-picস্টাফ রিপোর্টারঃ রবিবার সকাল ১১ টায় সোনারগাঁয়ের মোগড়াপাড়া থেকে সিদ্ধিরগঞ্জের চিটাগাংরোড পর্যন্ত চলাচলরত লেগুনায় রক্তচোষা অবৈধ চাঁদা বন্ধের দাবীতে ঢাকা-চট্রগ্রাম মহাসড়কের (বন্দরের) মালিবাগে সকল লেগুনা চলাচল বন্ধ করে সাইটে দাড়িয়ে রেখে শান্তিপূর্ণ মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে লেগুনার মালিক, ড্রাইভার ও শ্রমিকরা। মানবনন্ধনে অংশ নেয়া লেগুনার ড্রাইভার ও হেলাপাররা জানান সোনারগাঁয়ের মোগড়াপাড়া থেকে সিদ্ধিরগঞ্জের চিটাগাংরোড পর্যন্ত চলাচলরত লেগুনায় চিটাগাংরোড, কাঁচপুর, মদনপুর ও মোগরাপাড়া পয়েন্ট সহ প্রায় ৪-৫টি জায়গায় মোটা অংকের চাঁদা দিতে হয়। মোগরাপাড়া থেকে চিটাগাংরোডগামী লেগুনায় ৪ শত টাকা, মোগরাপাড়া থেকে ঢাকা মেডিকেল কলেজগামী লেগুনায় ৭ শত টাকা ও মেঘনা থেকে যাত্রাবাড়ীগামী লেগুনায় ৮ শত টাকা চাঁদা দিতে হয়। তাছাড়া কাঁচপুর হাইওয়ে থানা পুলিশকে লেগুনা প্রতি মাসিক ২ হাজার টাকা প্রদান করতে হয়। এমনকি নতুন লেগুনা রাস্তায় ঢোকাতে চাইলে মালিকপক্ষের কাছ থেকে ৫০ হাজার টাকা এককালীন চাঁদা দাবী করা হয়। যারা চাঁদা না দেয় তাদের গাড়ির স্টাফদের মারধর ও গাড়ি সাইটে দাড় করে রাখে চাঁদাবাজরা। মোগরাপাড়ায় আমির-মোছলেহ উদ্দিন গ্রুপ, মদনপুরে সালমান-তাওলাদ গ্রুপ, কাঁচপুরে বাবু গ্রুপ, চিটাগাংরোডে সোহেল গ্রুপ এ চাঁদা তুলছে বলে লেগুনার শ্রমিকরা উপস্থিত সাংবাদিকদের জানান। দিনের পর দিন চাঁদা দিয়ে অতিষ্ঠ অবস্থায় তারা ঐদিন গাড়ি চালানো বন্ধ করে দিয়ে এ মানববন্ধনে অংশ নেন। অবৈধ চাঁদা বন্ধ কর, করতে হবে, অবৈধ চাঁদা মানিনা, মানবনা। চাঁদাবাজদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নাও, নিতে হবে সহ আরও অসংখ্য স্লোগানে তারা মানব বন্ধন চালিয়ে যান। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত উক্ত রুটে লেগুনা চলাচল বন্ধ রয়েছে। চাঁদা বন্ধের ঘোষণা না আসা পর্যন্ত লেগুনা বন্ধ রাখার ঘোষণা দিয়েছে লেগুনা শ্রমিকরা এবং অচিরেই চাঁদা বন্ধে সরকারের নিকট সাহায্য কামনা করেছেন লেগুনার মালিক, ড্রাইভার ও হেলাপাররা। এদিকে হঠাৎ করে লেগুনা বন্ধ হয়ে যাওয়ায় মোগড়াপাড়া, লাঙ্গলবন্দ, টিপুরদী, মালিবাগ, জাঙ্গাল, কেওঢালা, মদনপুর, কাঁচপুর সহ বিভিন্ন রুটের যাত্রীরা গন্তব্যে পৌছতে হিমশিম খেতে দেখা যায়। তবে চাঁদা বন্ধের দাবীতে চলমান আন্দোলনের কথা শুনতে পেয়ে জনসাধারণও সন্তোষ প্রকাশ করেছেন এবং চাঁদা বন্ধে কার্যকর ব্যবস্থা নিতে প্রশাসনের যথাযথ হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন সকলে।






Related News

Comments are Closed