Main Menu

অবৈধ পেট্রোল উদ্ধারের নামে ট্যাংক লড়ী আটকে সোনারগাঁও থানার এসআই আলীমের ৩ লক্ষাধীক টাকা উৎকোচ গ্রহণ ॥ এবার গাড়ি ছাড়াতে আরও ৫ লক্ষ টাকা উৎকোচ দাবীর অভিযোগ

map_ng_6স্টাফ রিপোর্টারঃ অবৈধ পেট্রোল উদ্ধারের নামে সোনারগাঁও থানা পুলিশের এস আই আব্দুল আলীমের বিরুদ্ধে সাড়ে ৩ লক্ষ টাকা উৎকোচ গ্রহণ এবং ওসিকে বলে রফাদফার নামে আরও ৫ লক্ষ টাকা উৎকোচ দাবী করার অভিযোগ উঠেছে। ভূক্তভোগীদের কাছ থেকে ঘটনার বিবরণে জানা যায়, ০৭/১০/১৬ তারিখে ঢাকা-চট্রগ্রাম মহাসড়কের সোনারগাঁয়ের মোগড়াপাড়া চৌরাস্তায় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মুন্সিগঞ্জের গজারিয়া থেকে আসা হবিগঞ্জ-ঢ ৪১-০০০৩ নাম্বারের একটি ট্র্যাংক লড়ীতে অবৈধভাবে গজারিয়ার একটি তেলের ডিপো থেকে অবৈধ পেট্রোল পরিবহন করে সিদ্ধিরগঞ্জ যাওয়ায় সময় অত্র থানার এস আই আলীম সহ সঙ্গীয় ফোর্স ২১.৩০ মিনিটের সময় উক্ত ট্র্যাংক লড়ী আটক করার কথা এজাহারে বলা হলেও আমারা উক্ত ৯ হাজার লিটার পেট্রোল পরিবহনের চালান দেখালেও পুলিশ অবৈধ বলে চালিয়ে দিয়ে আমাদের গাড়ির ড্রাইভার ও সহযোগীকে মারধর করে এবং ভূয়া এজাহার দায়ের করার মাধ্যমে তাদেরকে কোর্টে প্রেরণ ও রিমান্ড আবেদন করা হয়েছে। গাড়ি ছেড়ে দেবার নাম করে আমাদের কাছ থেকে এস আই আলীম ৩.৫০ হাজার টাকা নিয়েছেন এবং গাড়ি ছাড়ার বিষয়ে এখন যোগাযোগ করা হলে আরও ৫ লক্ষ টাকা দাবী করছেন এবং এই দাবীকৃত টাকা দেয়া হলে তিনি ওসিকে বলে গাড়ি ছাড়ার বিষয়ে কাজ করবেন, না হলে আরও একটি মামলা দেয়া হবে বলে জানাচ্ছেন। বৈধ পেট্রোল পরিবহন ও চালান থাকার পরও এভাবে গাড়ি আটকে এতগুলো টাকা নিয়ে আমাদের সর্বশান্ত করা হচ্ছে। এ বিষয়ে না’গঞ্জ জেলা এসপি মঈনুল হকের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করছি।
এ বিষয়ে এস আই আলীমের সাথে ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি অভিযোগ অস্বীকার করেন এবং ভূক্তভোগীরা এ বিষয়ে কার সাথে কথা বলছেন তার জানা নেই বলে তিনি জানান।






Related News

Comments are Closed