Main Menu

বাংলাদেশে পূজা দেখতে ভারতীয়দের স্রোত

ভারতের পেট্রাপোল ক্লিয়ারিং এজেন্ট ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক কার্তিক চক্রবর্তী বলেন, অন্য যেকোনো বছরের চেয়ে এবার অনেক বেশিসংখ্যক ভারতীয় ছুটি কাটাতে বাংলাদেশে আসছে।

“ভারতে জাঁকজমকপূর্ণভাবে দীপাবলী বা কালীপূজা হলেও দুর্গোৎসব বাংলাদেশেই বেশি আড়ম্বরপূর্ণ হয়।”

বেনাপোল চেকপোস্ট ইমিগ্রেশন পুলিশের ওসি ইকবাল মাহমুদ বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, এবার বাংলাদেশে ভারতীয় ভ্রমণেচ্ছুকদের চাপ অন্য যেকোনো বছরের চেয়ে অনেক বেশি।

“দুর্গাপূজার ছুটি কাটাতে ও আত্মীয়-স্বজনের সঙ্গে দেখা করতে বাংলাদেশে আসছে তারা।”

কলকাতার হাওড়ার প্রেমানন্দ, অঞ্জনানাগ, হরেকৃষ্ণ ও স্বপ্না দাস সপরিবার এসেছেন বাংলাদেশের হিন্দু তীর্থস্থানগুলো দেখার জন্য।

প্রেমানন্দ বলেন, “সরকারি চাকরি করি, তাই ঘুরে বেড়ানোর সময় পাই না। পরিবারে সময় দিতে পারি না। এবার পূজার লম্বা ছুটি থাকায় নোয়াখালী বেড়াতে যাচ্ছি। কিছু আত্মীয় আছেন। তাদের সঙ্গে দেখা করব।”

নোয়াখালীতে গড়া ৭১ ফুট উঁচু প্রতিমা দেখার ইচ্ছা রয়েছে বলে তিনি জানান।

কলকাতার গৌতম মল্লিক ঢাকার ফরিদাবাদে যাবেন আত্মীয়বাড়ি বেড়াতে। তিনি বলেন, “ঢাকেশ্বরী মন্দিরের নাম শুনেছি, দেখা হয়নি। ওখানে যাব, পুজো দেব, আত্মীয়-স্বজনের সাথে এবার পুজোটা জমিয়ে করব।”

কলকাতার বাগুইহাটির সুকুমার দাস বলেন, “কাজের চাপে এত দিন সময় করে উঠতে পারিনি। লম্বা ছুটি পাওয়ার সুযোগ কাজে লাগাচ্ছি।”

চব্বিশ পরগনার অঞ্জনা নাগ বলেন, “এপার আসলাম বাংলাদেশি আত্মীয়-স্বজনদের সাথে পূজার উৎসব ভাগাভাগি করতে। একই সাথে বাংলাদেশের কয়েকটি দর্শনীয় স্থান ঘুরে দেখার ইচ্ছাও রয়েছে।”






Related News

Comments are Closed