Main Menu

রাঙ্গুনিয়ায় বিভিন্ন থিমে সাজানো হচ্ছে মণ্ডপ

unnamed-1পূূজার সময় ঘনিয়ে এসেছে হাতে সময় একদম নেই। আর তাই ব্যস্ততার শেষ নেই কারিগরদের। প্রতিমা নির্মাণের কাজ আরও আগে শেষ হলেও এখন চলছে নানা মাত্রায় তাকে সজ্জিত করার প্রক্রিয়া। বছর পাঁচেক হলো আমাদের দেশেও এসেছে থিমেটিক ধারণা। একেকটি থিমকে উপজীব্য করে সাজানো হয় পূজা মণ্ডপগুলো। এর মাধ্যমে শুধু পূজা নয়, দেশের সমসাময়িক নানা ইস্যু, ইতিহাস, ঐতিহ্য ইত্যাদি তুলে ধরার প্রয়াস চালানো হয়। সরেজমিনে রাঙ্গুনিয়া উপজেলার স্বনির্ভর রাঙ্গুনিয়া ইউনিয়নের দক্ষিন সাবেক রাঙ্গুনিয়া মহাজন পাড়ায় ছাত্র সমাজের প্রতিমা সাজানোর কাজে কর্মরত প্রতিমাশিল্পী গনেশ পাল ।

প্রতিমায় কী থিম ব্যবহার করছেন জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমরা সনাতন বা আদিরূপটিই রাখছি। ছাত্রসমাজের সভাপতি রাজন সাহা রাজ ও সাধারণ সম্পাদক কেতন সাহা জানান, “ পদ্ম সরোবরে মায়ের আবাহন” থিমে প্রকৃতির সব সৃষ্টি দিয়ে সাজানো হচ্ছে মন্ডপটি। খোলা আকাশ, চাঁদ, বৃক্ষ, লতাপাতাসহ প্রকৃতির সৃষ্টির সবকিছু এখানে থাকবে। রাতের বেলায় আলোর ঝলকানিতে মন্ডপটি মনে হবে অচিন কোনো রাজ্যে। আয়োজকদের মধ্যে পার্থ প্রতীম সাহা ও পঞ্চানন সাহা জানান, থিমের ধারণাটি এখন সকলের সামনে আসলেও এর প্রচলন বহু আগেই ছিল যা আমার বাবা ঠাকুরদাদের মুখে শুনেছি।

দেবীকে ভিন্ন ভিন্ন উপস্থাপনায় হাজির করার প্রয়াস থেকে কাপড়ের কাজ প্রচলন হয় অর্থাৎ কাপড় দিয়ে বিভিন্ন রূপকল্প, ফুল, পাল্কি ইত্যাদি তৈরি হতো। উত্তর রাঙ্গুনিয়ার একটি মণ্ডপে দেবী অধিষ্ঠিত হবেন প্রকৃতির সবুজ রং-কে ধারণ করে। গ্রীন হাউজ ইফেক্টের ক্ষতিকর প্রভাব তুলে ধরাই তাদের উদ্দেশ্য। রাঙ্গুনিয়া উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সাবেক সাধারন সম্পাদক নির্বাণীতোষ সাহা ভাষ্কর জানান, এবার রাঙ্গুনিয়ায় বিচিত্র বর্ণিল সাজে ১৪৮টি পূজা মন্ডপে শারদীয় দুর্গোৎসব অনুষ্ঠিত হবে এর বাইরে রয়েছে অনেক পারিবারিক পূজা। এবার দেবী আসছেন ঘোড়ায়। ষষ্টী,সপ্তমী, অষ্টমী, নবমী পূজা শেষে দশমীতে বিসর্জনের মহিমায় আলোকিত করে দেবী গজে গমন করবেন।

 






Related News

Comments are Closed