Main Menu

স্বার্থ আদায়ে ব্যার্থ হয়ে সোনারগাঁয়ে ভূমি কর্মকর্তাকে হয়রানী

map_ng_6সোনারগাঁ ঃ নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ে স্বার্থ আদায়ে ব্যার্থ হয়ে ইউনিয়ন ভূমি কর্মকর্তাকে হয়রানী করছেন একটি দালাল চক্র মহল। লিজ কৃত সম্পত্তি ব্যক্তি মালিকানা নামে নামখারিজ না দেওয়া হয়রানীর শিকার হচ্ছেন সাদিপুর ইউনিয়ন বরাব ভূমি অফিসের উপ-সহকারী ভূমি কর্মকর্তা জানে আলম।
জানা যায়, উপজেলার সাদিপুর ইউনিয়ন ভূমি অফিসের উপ-সহকারী কর্মকর্তা জানে আলম প্রায় ১৪ মাস আগে বরাব ভূমি অফিসে যোগদান করেন। যোগদানের পর থেকে ন্যায় নিষ্ঠার সাথে দায়িত্ব পালন করে আসছেন এ কর্মকর্তা। এ কর্মকর্তার কর্মজীবনে বিভিন্ন থানার ইউনিয়ন ভূমি অফিসে সততা ও সুনামের সঙ্গে দায়িত্ব পালন করেছেন। তার বিরুদ্ধে কোন প্রকার অভিযোগ নেই বলেই চলে। দায়িত্ব পালন কালে জনসাধারনে সেবার পাশাপাশি সরকারের স্বার্থ রক্ষায় বদ্ধ পরিকর। ন্যায় নিষ্ঠার সাথে দায়িত্ব পালন বাধাগ্রস্থ করতে একটি দালাল চক্র মহল এ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে উঠেপরে লেগেছে। এ কর্মকর্তাকে বিভিন্ন সময় নানা ভাবে হুমকিদুমকী ও সাংবাদিকদের দিয়ে স্থানীয় পত্রিকায় মিথ্যা সংবাদ প্রকাশ করে হয়রানী করে যাচ্ছে।
এ ব্যাপারে ইউনিয়ন ভূমি অফিসের উপ-সহকারী কর্মকর্তা জানে আলম জানান,সাদিপুর ইউনিয়নের সৌরুপা মৌজার লিজ কৃত সম্পত্তি আব্দুল রহমানের পিতা আব্দুল মান্নানের নামে ৯ শতাংশ জমির নামজারির জন্য আবেদন করেন। যাহার কেইস নং-৯৭৩০/১৫-১৬ । এ সম্পত্তি মনির হোসেন সরকার নামে ১৩.৫ শতাংশ জমি লিজ ভুক্ত। যাহার লিজ নথি নাম্বার-৩০/৭৯, তারিখ ০২/০২/১৯৭৯ ইং। যাহার এস.এ-১৩, নং দাগে লিজ ভুক্ত হিসাবে লিপিবদ্ধ করা হয়েছে। তার পরিপেক্ষিতে এনাম জারির আবেদনটি নামঞ্জুর করে প্রতিবেদন পাঠানো হয়েছে। আবেদনকারীর দাবী সাদিপুর ইউনিয়নস্থ ভারগাঁও মৌজায় আবেদন করার দাবী করলেও কোন প্রকার আবেদন বিগত ১৪ মাসে এনামে আবেদন পাওয়া যায়নি। আবেদনটি না মঞ্জুর করার ফলে একটি মহল আমাকে প্রতিদিন বিভিন্ন ভাবে হুমকিসহ সাংবাদিকদের দিয়ে মিথ্যা সংবাদ প্রকাশ করাচ্ছে। আমি মিথ্যা সংবাদদের তীব্রনিন্দা ও জোর প্রতিবাদ জানাচ্ছি।
এ বিষয়ে জানতে চাইলে বরাব ভূমি অফিসের সহকারী ভূমি কর্মকর্তা আলী হোসেন বলেন, আমার সাথে প্রায় এক বছর কাজ করছেন। আমি তার বিরুদ্ধে কোন প্রকার অভিযোগ পাইনি। যদি কেউ আমার কাছে অভিযোগ দিত তাহলে যাচাই বাছাই করে তার বিরুদ্ধে আইন মূলক ব্যবস্থা গ্রহন করতাম। আমি হজ্ব করার জন্য দুই মাস ছুটিতে ছিলাম ।






Related News

Comments are Closed