Main Menu

নদী দখলমুক্ত করতে নামছে সেনা ও নৌবাহিনী

6ঢাকা শহরকে ঘিরে রাখা বুড়িগঙ্গা, শীতলক্ষ্যা, তুরাগ ও বালু নদী দখলমুক্ত করতে এবছরই অভিযান শুরু করছে সেনাবাহিনী। এরইমধ্যে সরকার নদী দখলমুক্ত করার দায়িত্ব দেয়া হয়েছে সেনা ও নৌবাহিনীকে। পরিবেশবিদরা বলছে, উচ্চ আদালতের রায় অনুযায়ী নদীর সীমানা নির্ধারণ করে উদ্ধার কাজ শুরু করা উচিত।

ঢাকার উত্তর-পূর্ব দিয়ে প্রবাহিত বালু নদী ডেমরা, তারাবো হয়ে পড়েছে শীতলক্ষ্যায়। দীর্ঘ দিন ধরে পলি জমে শীতলক্ষ্যা ও বালুর মোহনায় সৃষ্টি হয়েছে চনপাড়া চর। ভূমি দস্যুদের কল্যাণে নদীর মাঝে ভূমির আকার দিন দিন বাড়ছেই। বিতর্কিত সীমানা পিলার তাদের দখলের কাজকে আরো সহজ করেছে।

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিবেশ বিজ্ঞান বিভাগের গবেষণা বলছে, শীতলক্ষ্যা ও বালু নদীর ৩২.৬৭ একর সীমানা দখল হয়েছে।

আবদুল্লাহপুর থেকে গাবতলী পর্যন্ত তুরাগের ১২০ দশমিক সাত নয় একর জমি দখল হয়ে গেছে। কামরাঙ্গীরচর থেকে বসিলা পর্যন্ত বুড়িগঙ্গার ৯৭ দশমিক এক সাত একর জমি ভূমি খেকোদের দখলে।

চারটি নদী উদ্ধারে সফল হলে রাজধানীর সাথে সারা দেশের নৌ যোগাযোগে আমুল পরিবর্তন হবে বলে মনে করেন গবেষকেরা।

 






Related News

Comments are Closed